সদর দ্বার দিবে বলে
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ৭ মে ২০২১ | ২৩ বৈশাখ ১৪২৮



সদর দ্বার দিবে বলে

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:৪৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১

সদর দ্বার দিবে বলে
প্রতিটি বাড়ির সদর দরজাকে বলা যেতে পারে সেই বাড়ির আয়না৷ অর্থাত্‍ কোনো বাড়ির শুধুমাত্র সামনের দরজাই বুঝিয়ে দিতে পারে সেই বাড়ির অন্দরমহলের কথা৷ আসল ব্যাপার হল আপনার রুচিবোধ তুলে ধরার ক্ষেত্রে সবার প্রথম যে বিষয়টি সামনে চলে আসে, তা হল আপনার বাড়ির মূল ফটক৷ অবশ্য শুধুমাত্র সদর দরজার কথা বললে ভুল হবে৷ বাড়ির প্রতিটি দরজাই সেই নির্দিষ্ট ঘরের সম্বন্ধে একটা স্বচ্ছ ধারণা সৃষ্টি করে৷ আজকাল দরজাকে একটু আধুনিকভাবে সাজিয়ে তোলবার জন্য অনেক ধরনের উপায় আছে৷ এবার সেগুলোর মধ্যে থেকে আপনি ঠিক কোনটিকে বেছে নেবেন আর কেনই বা বাছবেন সে ব্যাপারেই থাকছে আমাদের কয়েকটি টিপস৷

কী দিয়ে তৈরি হবে দরজা

কাঠের তৈরি দরজাকেই বেশিরভাগ মানুষ প্রাধান্য দিয়ে থাকেন৷ তা সেগুন, দেবদারু, শাল কিংবা শিশু কাঠের হতে পারে৷ প্রধানত সদর দরজাটা সেগুন কাঠের হওয়াই বাঞ্চনীয়৷ সেগুন কাঠ একাধারে যেমন মজবুত অন্যদিকে খুব টেকসইও বটে৷ এই কাঠটা এমন একটা কাঠ যার ওপর আপনি আপনার ইচ্ছামতো বিভিন্ন ধরনের নক্সা করতে পারেন৷ যেমন উড কার্ভিং হতে পারে বা পালিশের ওপর বিভিন্ন রঙ প্রয়োগ করতে পারেন৷ এখানেই শেষ নয়, মূল কথা হল এই কাঠের স্থায়িত্ব অনেক বেশি৷

কীভাবে সাজাবেন আপনার দরজা

আপনার মূল দরজাটিকে গাঢ় রঙ করান৷ দরজার চারপাশে দেওয়ালগুলোকে দরজার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে একটু হাল্কা রঙ দিন৷ মূল ফটকের বাইরে দুটো ছোটো গাছের টব রাখতে পারেন৷ তবে তা যেন অবশ্যই ইনডোর প্ল্যান্ট হয়৷ এছাড়া দরজার ঠিক পাশের দেওয়ালটা যদি ফাঁকা থাকে তাহলে সেখানে একটা র‌্যাক বানিয়ে নিন৷ তার ওপর জায়গা দিন বিভিন্ন রকমের মূর্তি৷ ইচ্ছা করলে দরজার ওপরে লাগিয়ে ফেলতে পারেন ছোটো একটা ঘন্টা৷ আর সর্বপরি আপনার বাড়ির নম্বরটা দরজার ওপর কায়দা করে বসিয়ে দিন এবং দরজার ওপরে একটা সুন্দর আলো লাগিয়ে ফেলুন৷ ব্যস আপনার দরজা রেডি৷

লকটি কেমন হবে

এখন বিভিন্ন ধরনের লক বাজারে কিনতে পাওয়া যায়৷ তবে খেয়াল রাখবেন দরজার লক যেন অবশ্যই উন্নত মানের হয়৷ এছাড়া দরজাতে অবশ্যই ভালো হার্ডওয়ার ব্যবহার করা উচিত৷ বিশেষ করে দরজার হাতল, ডোর স্টপার, ডোর ম্যাগনেট, ডোর ক্লোজার কিংবা ডোর নব৷ তাহলে দরজা দেখতে যেমন ভালো হবে, তেমনই সুরক্ষার দিকটিও গুরুত্ব পাবে৷

কোন ঘরে কেমন দরজা

বাড়ির বারান্দা বা ছাদের ক্ষেত্রে ফ্রেঞ্চ ডোর ব্যবহার করলেই ভালো৷ এছাড়া অ্যালুমিনিয়াম কিংবা ইউপিভিসি-র স্লাইডিং ডোর লাগালেও মন্দ লাগবে না৷ আর যদি ইউপিভিসি-র দরজা লাগাতে না চান সেক্ষেত্রে গ্লাস ডোরের কথাও একবার ভেবে দেখতে পারেন৷ লিভিং রুমেও গ্লাস ডোর লাগাতে পারেন, তা আপনার ঘরকে দেবে উষ্ণতার ছোয়া৷

দরজার দরকারি কথা

প্রতি পাঁচ থেকে সাত বছর অন্তর আপনার দরজা পালিশ করান

যেই দরজাই কিনুন না কেন, তা যেন অবশ্যই উন্নতমানের হয়

দরজা সর্বদা ওয়াটার প্রুফ হওয়া প্রয়োজন৷ এছাড়া এমন দরজা কিনবেন যার উই এবং কিছুটা হলেও আগুন প্রতিরোধক ক্ষমতা রয়েছে। দরজার সামনে ডোর ম্যাট রাখা আবশ্যক

ওএস/ইসি

 

আরও পড়ুন

আরও