বাঁদর থেকে ছড়ানো ভাইরাসে চিকিৎসকের মৃত্যু
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১ | ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

বাঁদর থেকে ছড়ানো ভাইরাসে চিকিৎসকের মৃত্যু

পরিবর্তন ডেস্ক ১:০১ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০২১

বাঁদর থেকে ছড়ানো ভাইরাসে চিকিৎসকের মৃত্যু
এক বিশ্বজুড়ে চলছে করোনার ভয়াবহতা। এর মধ্যেই এবার বাঁদরের থেকে ছড়ানো ভাইরাস নিয়ে নতুন করে চিন্তা বৃদ্ধি হলো চিনে। বেজিং শহরের এক পশু চিকিৎসক বানর প্রজাতির উপর কাজ করছিলেন। সেখান থেকেই ওই চিকিৎসকের দেহে ছড়িয়ে পড়ে মাংকি বি ভাইরাস(BV) । এই ভাইরাসের জেরেই মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির।
যদিও গ্লোবাল টাইমের তরফে জানান হয়েছে ওই আক্রান্ত চিকিৎসকের যারা সংস্পর্শে এসেছে তারা সকলেই নিরাপদে রয়েছেন। প্রাণীকূলের নানা প্রজাতির উপর একটি ইনস্টিটিউটে গবেষণা করতে ৫৩ বছরের ওই চিকিৎসক।  

জানা গিয়েছে, চলতি বছরের মার্চে দুটি মৃত বানরের দেহে ডিসেকশন প্রক্রিয়া চালিয়েছিলেন তিনি। এরপর ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার পর বমির মত উপসর্গ দেখা যায় তাঁর শরীরে। পরবর্তীতে রোগ বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাঁকে। ২৭ মে মৃত্যু হয় পশু চিকিৎসকের। 

এর আগে মাংকি বি ভাইরাসে  চিনে মিললেও এর প্রভাবে মৃত্যুর ঘটনা এই প্রথম শি জিনপিংয়ের দেশে। মার্চে যখন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন পশু চিকিৎসক, সেই সময়ই গবেষকরা তার সেরেব্রোস্পাইনাল ফ্লুইড সংগ্রহ করে বিশ্লেষণ করে দেখেন তিনি এই ভাইরাস আক্রান্ত। 

প্রসঙ্গত, ১৯৩২ সালে এই ভাইরাস প্রথম আইসোলেটেড করা হয়। ম্যাকাকা প্রজাতির দেহে প্রথম alphaherpesvirus র সন্ধান পাওয়া যায়। গবেষকরা জানিয়েছেন এটি সরাসরি সংস্পর্শেও সংক্রমিত হতে পারে। এই ভাইরাসের প্রভাবে মৃত্যু হার ৭০ থেকে ৮০ শতাংশ।

ওএস/ইসি
 

আরও পড়ুন

আরও