অস্ট্রেলিয়ায় ডাইনোসরের নতুন প্রজাতি আবিষ্কার
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২০ জুন ২০২১ | ৬ আষাঢ় ১৪২৮

অস্ট্রেলিয়ায় ডাইনোসরের নতুন প্রজাতি আবিষ্কার

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:২৯ অপরাহ্ণ, জুন ১০, ২০২১

অস্ট্রেলিয়ায় ডাইনোসরের নতুন প্রজাতি আবিষ্কার
অস্ট্রেলিয়ায় সন্ধান মিললো এক বিশাল আকৃতির ডাইনোসরের হাড়ের। এটি সম্পূর্ণ এক নতুন প্রজাতির ডাইনোসর। পৃথিবীতে অতীতে যে সব ডাইনোসর বাস করত তাদের মধ্যে বৃহদাকৃতির তালিকায় স্থান পাবে এই ডাইনোসর। এরা ছিলো টাইটানোসর প্রজাতির । ১০০ মিলিয়ন বা ১০ কোটি বছর আগে পৃথিবীর বুকে দাপিয়ে বেড়াত এরা। ১৫ বছর আগেই এদের হাড় আবিষ্কৃত হয়েছিলো। কিন্তু নামকরণ হয়েছে সম্প্রতি।
বিজ্ঞানীরা এই প্রজাতির নাম রেখেছেন ‘কুপার’ । এই ‘অস্ট্রালোটাইটান কুপারেনসিস’দের  আকৃতি ছিলো বিরাট। এদের উচ্চতা ছিলো ৫ থেকে ৬.৫ মিটার (১৬ থেকে ২১ ফিট)। দৈর্ঘ্য ছিলো ২৫ থেকে ৩০ মিচার (৮২ থেকে ৯৮ ফিট)। 

অস্ট্রেলিয়ায় এই প্রজাতির ডাইনোসরই ছিল সবচেয়ে বৃহদাকৃতির। এরোমাঙ্গা ন্যাচরাল হিস্ট্রি মিউজিয়ামের  ডিরেক্টর রবিন ম্যাকেঞ্জি   বলেছেন, ডাইনোসরের যে সব অঙ্গ সংরক্ষণ করা রয়েছে তার মধ্যে এই টাইটানোসরের অঙ্গগুলি প্রথম পাঁচ দীর্ঘাকৃতি অঙ্গের মধ্যে আসে। ২০০৬ সালে ম্যাকেঞ্জির ফ্যামিলি ফার্ম থেকে ১ হাজার কিলোমিটার (৬২০ মাইল) দূরে এই হাড়ের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিলো। তখন বিজ্ঞানীরা কিছু প্রকাশ করেনি। ২০০৭ সালে এই হাড় প্রথম প্রকাশ্যে নিয়ে আসা হয়।

কুইনসল্যান্ড মিউজিয়ামের বিজ্ঞানী স্কট হকনাল বলেছেন, ‘অস্ট্রালোটাইটান কুপারেনসিস’ যে একটি নতুন একটি প্রজাতি তা নিশ্চিত করা খুব দীর্ঘ এবং কষ্টসাধ্য কাজ। এই ডাইনোসর প্রজাতির কাছাকাছি যে সব ডাইনোসরের হাড় পাওয়া গিয়েছে তার সাথে তুলনা করা হয়। 

হাড়ের থ্রিডি স্ক্যান মডেলও করা হয়। তার উপর নির্ভরশীল এই গবেষণা করেন বিজ্ঞানীরা। এই গবেষণা সোমবার একটি জার্নালে প্রকাশিত হয়। যেখান তেকে এই ডাইনোসরের হাড় আবিষ্কৃত হয়েছে সেই একই জায়গায় আরও অনেক ডাইনোসর কঙ্কাল পাওয়া গিয়েছে। হকনুল বলেছে, এই সংক্রান্ত আরও বিস্তারিত জানতে এখনও অনেক গবেষণা প্রয়োজন।

তথ্য: npr

এসকে
 

আরও পড়ুন

আরও