চলে গেলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা সাজেদুল আউয়াল
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ৯ মে ২০২১ | ২৬ বৈশাখ ১৪২৮



চলে গেলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা সাজেদুল আউয়াল

পরিবর্তন ডেস্ক ৯:৫৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৬, ২০২১

চলে গেলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা সাজেদুল আউয়াল
চলে গেলেন দেশের জনপ্রিয় চলচ্চিত্র নির্মাতা ও গবেষক সাজেদুল আউয়াল। জনপ্রিয় এই নির্মাতা বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিজ বাসায় তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন।
 গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন  জনপ্রিয় এই নির্মাতার একমাত্র ছেলে ইশরাত শামীম অনন্ত।

গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, 'বাবা গত মাসে করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। পরে তার করোনা পরীক্ষার রেজাল্ট নেগেটিভ হওয়ার পর হাসপাতাল থেকে বাসায় নিয়ে আসা হয়। এরপর কিছুটা ভালো ছিলেন। আজকে সন্ধ্যার পর হঠাৎ করেই বলছিলেন, খারাপ লাগছে। কিছুক্ষণের মধ্যে শ্বাসকষ্ট বেড়ে যায়। তখন অ্যাম্বুলেন্স কল করি। কিন্তু আধা ঘণ্টার মধ্যে তিনি মারা যান। তাকে হাসপাতালে আর নিতে পারিনি।'

সাজেদুল আউয়াল নির্মিত প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘ছিটকিনি’। তিনি একজন অগ্রজ চলচ্চিত্র সংসদকর্মী ছিলেন। দেশের নাট্য-আন্দোলনেও রয়েছে তার দীর্ঘ পরিক্রমা। তার রচিত প্রথম কাব্যনাটক ‘ফণিমনসা’। ১৯৮০ সালে নাটকটি মঞ্চায়নকালে যথেষ্ট সাড়া ফেলেছিল, যার রেশ এখনো রয়ে গেছে।

জনপ্রিয় এই নির্মাতা বাংলা একাডেমির আজীবন সদস্য ও এশিয়াটিক সোসাইটি অব বাংলাদেশের সদস্য ছিলেন। বাংলাদেশে চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য ছিলেন ২০০৯ থেকে ২০১০ পর্যন্ত। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১২ এর জুরি বোর্ডের সদস্য ছিলেন। সরকারী অনুদানে পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বাছাই কমিটির সদস্য ছিলেন ২০১৩-১৫ পর্যন্ত।

বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ জার্নালের নির্বাহী সম্পাদক ছিলেন দুই মেয়াদে ২০০৮-১১ এবং ২০১৪-১৫ পর্যন্ত।

চলচ্চিত্র নির্মাণে তার সূচনা ১৯৯৯ সালে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘নির্ভানা’র মধ্য দিয়ে। এরপর দীর্ঘ সময় নিয়েছেন প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্যের কাহিনিচিত্র নির্মাণে। ২০১৭ সালে তিনি নির্মাণ করেছেন ‘ছিটকিনি’। ছবিটির কাহিনি, সংলাপ ও চিত্রনাট্যও তৈরি করেছেন তিনি।

তিনি অসংখ্য নাটক রচনা করেছেন— ফণিমনসা, রাঙামিলার পাঙ্খাবিবি, জম্মুন জমাদার, ছত্রিশ প্রহরের মাঠ। তার অসংখ্য  বইয়ের ভিতর উল্লেখযোগ্য — চলচ্চিত্রকলার রূপ-রূপান্তর, চলচ্চিত্রচর্যা, নাট্যচর্যা ইত্যাদি।

ওএস/এসকে
 

আরও পড়ুন

আরও