মনোমুগ্ধকর মায়াবী মনপুরা
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ | ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭

মনোমুগ্ধকর মায়াবী মনপুরা

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:০৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১

মনোমুগ্ধকর মায়াবী মনপুরা
মেঘনার মোহনায়, দ্বীপের নাম মনপুরা! বঙ্গোপসাগরের উত্তরে যার অবস্থান। বাংলাদেশের ভোলা জেলার মনপুরা উপজেলায় ছোট বড় অন্তত ১০টি চর নিয়ে মনপুরা অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের এক লীলাভূমি। প্রাণী আর উদ্ভিদের বৈচিত্র্যময় মনপুরাতে না আসা অবধি বুঝা দায় যে, এ দ্বীপে কত মায়া লুকায়িত রয়েছে!

মাইলের পর মাইল সবুজ বৃক্ষরাজি মনপুরাকে সাজিয়েছেন অকৃত্রিম সৌন্দর্যে! শীতে শত শত অতিথি পাখির কলকাকলিতে মুখরিত থাকে দ্বীপের চারপাশ।

বিকালের শেষে এক পা, দু পা করে আকাশের সিঁড়ি বেয়ে লাল আভা ছড়িয়ে মুখ লোকায় সূর্য আর রাতে ঘুমটা ছড়ানো নববধূর বেশে স্বলাজ নিস্তব্ধতা ছড়িয়ে সুনসান নিরবতায় ছেয়ে যায় পুরো দ্বীপ!

ভোলা জেলার মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন মনপুরা দ্বীপ বিশাল ম্যানগ্রোভ প্রজাতির বৃক্ষরাজিতে সমৃদ্ধ। অতি প্রাচীন এ দ্বীপে এক সময় পর্তুগীজদের আস্তানা ছিল যে কারণে লম্বা লোমওয়ালা কুকুরে দেখা মেলে সহসাই !

মনপুরাতে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের অসম্ভব ভালো লাগার দৃশ্য, দুটোই উপভোগ করা যায়। রাতে হাতছানি দেয় মনপুরার ভিন্ন আরেক রূপ! চরাঞ্চলে অতিথি পাখির ডানা মেলে উড়ে যাওয়া, হরিণের দল বেধে ছুটাছুটি, নদীতে সাম্পানের দাঁড় বেয়ে যাবার ছপছপ শব্দ ক্ষণে ক্ষণে রোমাঞ্চ জাগাবে, নিশ্চিত থাকুন অন্তত!

যেভাবে যাবেনঃ অনেকটা বিচ্ছিন্ন দ্বীপ হওয়ায় লঞ্চ হচ্ছে যাতায়াতের অন্যতম ভরসা। ঢাকা সদরঘাট থেকে লঞ্চ যাত্রায় আপনি পৌছুতে পারবেন হাতিয়া হয়ে মায়াবী মনপুরা দ্বীপে।

কোথায় থাকবেন? সরকারি ডাকবাংলো ছাড়াও রয়েছে আবাসিক হোটেল তবে ক্যাম্পিং করে থাকার আদর্শ ও রোমাঞ্চকর জায়গা হলো মনপুরা!

ওএস/ইসি

 

আরও পড়ুন

আরও