সিলেটে করোনা সন্দেহে প্রবাসী কোয়ারেন্টাইন
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ এপ্রিল ২০২০ | ২৪ চৈত্র ১৪২৬

সিলেটে করোনা সন্দেহে প্রবাসী কোয়ারেন্টাইন

দিপু সিদ্দিকী, সিলেট ১:৪১ অপরাহ্ণ, মার্চ ০৫, ২০২০

সিলেটে করোনা সন্দেহে প্রবাসী কোয়ারেন্টাইন

সিলেটে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে দুবাই প্রবাসী এক যুবক হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। বুধবার দুপুরে সিলেটের জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গেলে তার রোগ হিস্ট্রি শুনে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসার পরামর্শ দেওয়া হয়। পরে রাতে করোনা সন্দেহে তাকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের একটি কেবিনে ভর্তি করে কোয়ারেন্টাইন রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। চিকিৎসকরা বলছেন, এখনো নিশ্চিত না ওই দুবাই প্রবাসী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কী না। আর রোগী ও তার স্বজনদের অভিযোগ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এমন অপপ্রচারে শ্বাসকষ্টের চিকিৎসাও পাচ্ছেন না ঠিকমতো।

সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সুতারগ্রামের হাফিজ আলী হোসেনের ছেলে জাকারিয়া (৩২) বসবাস করেন দুবাইয়ে। গত ২৮ ফেব্রুয়ারি দুবাই থেকে রওয়ানা দিয়ে ২৯ ফেব্রুয়ারি দেশে ফেরেন। শ্বাসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হওয়ায় গত বুধবার চিকিৎসা নিতে জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। তার রোগের ইতিহাস ও প্রবাসী জেনে তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কিংবা ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দেন। বুধবার ওসমানী হাসপাতালের জরুরী বিভাগে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তার সমস্যাগুলো শুনেন। যেগুলো করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত রোগীর লক্ষণের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। পরে জেলা প্রশাসনের নির্দেশে তাকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এদিকে করোনা ভাইরাসে সনাক্ত করার কোনো পরীক্ষা সিলেটে না থাকায় তার রক্তের নমুনা ঢাকায় পাঠানো হচ্ছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে করোনা সন্দেহে ভর্তি প্রবাসী জাকারিয়ার রক্ত সংগ্রহ করেছে আইসিসিডিআরর টিম। এখন রক্ত ঢাকায় পাঠিয়ে টেস্ট করা হবে আসলেই তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কি না। টেস্টের রিপোর্ট আসার পর পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া করোনা মোকাবেলায় গঠিত মেডিকেল টিমও জাকারিয়াকে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন।

এদিকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে কেবিনে চিকিৎসাধীন দুবাই প্রবাসী সেই যুবক করোনা আক্রান্ত এমন অপপ্রচারে ক্ষুব্ধ। তিনি বলেন, এতে তিনি ঠিকমতো চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন না। একই অভিযোগ তার পরিবারেরও।

তার ভাই জানান, জাকারিয়া প্রবাসী ও শ্বাসকষ্টের রোগী। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এমন অপপ্রচারের কারণে শ্বাসকষ্টেরও চিকিৎসা হচ্ছে না।

এদিকে প্রবাসী জাকারিয়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কী না, তা নিশ্চিত নন চিকিৎসকরাও। শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সুশান্ত বলেন, পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। জ্বর এবং বিদেশফেরত হিসেবে সন্দেহ করা হচ্ছে। তাই তাকে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিকে সিলেটে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সনাক্ত হওয়ার গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। মুখে মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

ডিএস/আরএইচ/এএসটি

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও