তুরস্কে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে ইবির ১৪৪ শিক্ষার্থী
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০ | ২১ চৈত্র ১৪২৬

তুরস্কে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে ইবির ১৪৪ শিক্ষার্থী

ইবি প্রতিনিধি ৫:২৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ০২, ২০২০

তুরস্কে উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাচ্ছে ইবির ১৪৪ শিক্ষার্থী

তুরস্কের তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার সুযোগ পাচ্ছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪৪ জন শিক্ষার্থী। ইউরোপীয় ইউনিয়নের অধিভুক্ত মেভলোনা এক্সেঞ্জ প্রোগ্রাম প্রটোকলের আওতায় এ উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার সুযোগ প্রদান করা হবে।

সোমবার দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের আয়োজনে প্রশাসন ভবনের সভাকক্ষে এ বিষয় সম্পর্কিত এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, গত বছর ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে তুরস্কের ইগদির, কাফকাস ও চানকিরি কারাতিকিন বিশ্ববিদ্য্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং একাডেমিক বিষয় বিনিময় সম্পর্কিত দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

চুক্তি অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের মোট ১৪৪ জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা বিনিময়ের সুযোগ পাচ্ছে।

আগ্রহী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নিজ বিভাগের সভাপতির মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। পরে চুড়ান্তভাবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো পছন্দের প্রার্থী মনোনীত করবে।

এদিকে একই নিয়মের আওতায় তুরস্কের দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরাও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে পারবে। উভয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার খরচ বহন করবে ইউরোপীয় ইউনিয়নের অধিভুক্ত মেভলোনা এক্সেঞ্জ প্রোগ্রাম।

ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের পরিচালক প্রফেসর ড. শাহাদাৎ হোসেন আজাদের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও বিভিন্ন বিভাগের সভাপতি ও প্রশাসনের উচ্চ পদস্থকর্তা ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, সারা পৃথিবীতে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার পদ্ধতিতে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন হচ্ছে। আমাদের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা বাইরের দেশে তাদের নিজ বিশ্ববিদ্যালয়কে উপস্থাপন করবে।

এমএফ/

 

শিক্ষাঙ্গন: আরও পড়ুন

আরও