বিএসইসি'র নতুন চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭

বিএসইসি'র নতুন চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:৩৩ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০২০

বিএসইসি'র নতুন চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত
পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) নতুন চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্ব পেয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগের অধ্যাপক ও সাধারণ বীমা করপোরেশনের (এসবিসি) চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম।

রোববার মন্ত্রণালয়ের বিএসইসি ও বিআইসিএম বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপসচিব ড. নাহিদ হোসেন স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে তাকে ৪ বছরের জন্য বিএসইসির চেয়ারম্যান নিয়োগ দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে অবিলম্বে এই আদেশ কার্যকর হবে বলে জানানো হয়েছে।

শিবলী রুবাইয়াত উল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং অ্যান্ড ইন্স্যুরেন্স বিভাগ থেকে ডেপুটেশন নিয়ে চার বছরের চুক্তিভিত্তিক মেয়াদে বিএসইসিতে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন।

এদিকে, গত ১৫ মে থেকে বিএসইসির চেয়ারম্যান পদ ফাঁকা রয়েছে। এছাড়া আর তিনজন কমিশনারের পদও ফাঁকা রয়েছে। ফলে নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান যেদিন যোগ দেবেন সেদিন থেকেই তার মেয়াদ কার্যকর হবে।

এর আগে গত ১৮ এপ্রিল সাবেক কমিশনার অধ্যাপক স্বপন কুমার বালার চুক্তিভিত্তিক মেয়াদ শেষ হয়েছে। তিনি আগের কর্মস্থল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগে চলে গেছেন। আরেক সাবেক কমিশনার অধ্যাপক হেলাল উদ্দীন নিজামীর চুক্তিভিত্তিক মেয়াদ ৩ মে শেষ হয়েছে। তিনিও চলে গেছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন বিভাগে। আর ২০১১ সালের ২৯ মে নিয়োগ পাওয়া সাবেক কমিশনার আমজাদ হোসেনের চুক্তিভিত্তিক মেয়াদ শেষ হয় ২০১৮ সালের ৩০ এপ্রিল। এরপর থেকেই ওই পদে যোগ্য কাউকে নিয়োগ দিতে পারেনি সরকার। সর্বশেষ গত ১৪ মে বিএসইসি’র বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যাপক এম খায়রুল হোসেনের মেয়াদ শেষ হয়েছে।

ফলে করোনাকালে বিএসইসি যেন অভিভাবকহীন হয়ে না পড়ে সে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে সরকার জরুরিভিত্তিতে চেয়ারম্যানের নিয়োগ দিয়েছে।

অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম গত দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে ফাইন্যান্স, ব্যাংকিং ও বিমা শিক্ষার সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছেন। এই সময়ে অধ্যাপক শিবলী দেশে এবং বিদেশে ফিন্যান্স, ব্যাংকিং এবং বিমাক্ষেত্র সম্পর্কিত অনেক ব্যবসায়, চেম্বার এবং গবেষণায় সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছেন।

তিনি টারশিয়ারি পর্যায়ের জন্যে ‘ই-কমার্স ও ই-ব্যাংকিং’ এবং মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের জন্যে জাতীয় বোর্ড প্রকাশিত ‘ফাইন্যান্স ও ব্যাংকিং’ বইয়ের লেখক। অধ্যাপক শিবলীর এ বিষয় সংশ্লিষ্ট ১৬টিরও বেশি গবেষণা প্রকাশনা এবং ৫টি আন্তর্জাতিক গবেষণামূলক প্রবন্ধ রয়েছে।

তিনি আইন ও ব্যবহারিক ব্যাংকিং, রিটেইল ও ই-ব্যাংকিং, বৈদেশিক বিনিময় ও আন্তর্জাতিক ব্যাংকিং, কর্পোরেট সুশাসন, ব্যবসায় ও মৌলিক বিমা সংক্রান্ত আইন বিষয়ের ওপর বিশেষজ্ঞ। সম্প্রতি তিনি চীনের চেংদু-তে অবস্থিত সিচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২১ সাল পর্যন্ত ‘অতিথি অধ্যাপক’ হিসাবে এবং বিএকেইউএমএসইএম সম্মেলনে শ্রেষ্ঠ গবেষণা পত্রিকার উপস্থাপক হিসাবে মনোনিত হয়েছেন।

জেডএস

 

: আরও পড়ুন

আরও