পাকিস্তানে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ৯৭
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

পাকিস্তানে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ৯৭

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ, মে ২৩, ২০২০

পাকিস্তানে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ৯৭
পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশের করাচিতে বিমান বিধ্বস্তে নিহত বেড়ে ৯৭ জনে দাঁড়িয়েছে। পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) এয়ারবাস এ-৩২০ বিমানটিতে ৯৯ জন আরোহী ছিলেন।

শুক্রবার সিন্ধুর স্বাস্থ্য বিভাগের বরাত দিয়ে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডন এ তথ্য জানায়।

ডনের প্রতিবেদনের বলা হয়, বিমানটির দুই আরোহীকে জীবিত উদ্ধার করা গেছে।

শুক্রবার দুপুরে লাহোর থেকে ছেড়ে আসা এয়ারবাস এ-৩২০ বিমানটি করাচির জিন্নাহ ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে নামার আগে  তার কাছের একটি আবাসিক এলাকায় বিধ্বস্ত হয়।

পাকিস্তানের পতাকাবাহী এই বিমানে ৯১ জন যাত্রী এবং ৮ জন ক্রু ছিলেন বলে জানা গেছে। করোনাভাইরাস লকডাউনের পর বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালুর অনুমতি দেওয়ার কয়েক দিনের মধ্যে করাচিতে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটলো।

পিআইএ’র মুখপাত্র জানান, স্থানীয় সময় আড়াইটার দিকে নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সঙ্গে বিমানটির যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। এর কিছু সময়ের মধ্যেই এটি বিধ্বস্ত হয়।

সিন্ধু প্রদেশের স্বাস্থ্য বিভাগের মুখপাত্র মিরান ইউসুফ জানিয়েছেন, বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ৯৭ জনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত হওয়া গেছে। আর অলৌকিকভাবে বেঁচে গেছেন বিমানের দুই আরোহী। এদের একজন ব্যাংক অব পাঞ্জাবের প্রেসিডেন্ট জাফর মাসুদ। অপরজনের নাম জুবায়ের বলে জানান তিনি। তাদের সিভিল হাসপাতাল ও দারুল সেহাত হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে বলেও জানান তিনি।

বিমান দুর্ঘটনার কারণ এখন্ও নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি। তবে পিআইএ’র প্রধান নির্বাহী এয়ার ভাইস মার্শাল আরশাদ মালিক বলেছেন, বিমানটিতে যান্ত্রিক ত্রুটি ছিল বলে নিয়ন্ত্রণ কক্ষকে জানিয়েছিলেন পাইলট।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এয়ারবাস এ-৩২০ জিন্নাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিকটবর্তী একটি আবাসিক এলাকায় দুর্ঘটনার আগে দু'বার তিনবার নামার চেষ্টা করেছিল।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এ ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করে দুর্ঘটনার বিষয়টি দ্রুত তদন্ত করার আশ্বাস দিয়েছেন।

ওএস/জেডএস

 

: আরও পড়ুন

আরও