পঞ্চগড়ে নারীসহ ৪ জনের করোনা শনাক্ত
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৩০ মে ২০২০ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

পঞ্চগড়ে নারীসহ ৪ জনের করোনা শনাক্ত

পঞ্চগড় প্রতিনিধি ১১:৫৫ পূর্বাহ্ণ, মে ১৬, ২০২০

পঞ্চগড়ে নারীসহ ৪ জনের করোনা শনাক্ত
পঞ্চগড়ে নমুনা সংগ্রহের পরীক্ষার পর এক নারীসহ আরো ৪ ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে তেঁতুলিয়া উপজেলার ১ জন ও দেবীগঞ্জ উপজেলার ৩ জন।

এদিকে, তেঁতুলিয়া উপজেলার ৪ জন, বোদার ১ জন ও দেবীগঞ্জের ২ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন। তারা নিজ বাড়িতে আছেন।

তেঁতুলিয়া উপজেলার আক্রান্ত একজনের বাড়ি দেবনগড় ইউনিয়নের গ্রামে কামাত পাড়া এবং  তার বয়স ৩৮ বছর। এছাড়া দেবীগঞ্জ উপজেলার আক্রান্তদের একজনের বাড়ি টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের বাবু পাড়া, তার বয়স ২৫ ও অপর ২ জনের বাড়ি চিলাহাটি ইউনিয়নের শেখবাধা গ্রামে। এ নিয়ে করোনা ভাইরাসের শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ১৯ জনে।

শুক্রবার রাতে ৪ ব্যাক্তির করোনা শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন পঞ্চগড় জেলা সিভিল সার্জন ডা. ফজলুর রহমান।

তেঁতুলিয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সোহাগ চন্দ্র সাহা ও দেবীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা প্রত্যয় হাসান জানান, ঢাকা থেকে ফেরার পর আক্রান্ত ব্যক্তিদের বাড়ি লকডাউন করা হয়েছিল। তবে করোনা শনাক্ত হওয়ার রির্পোট পাওয়ার পরপরই করোনা আক্রান্ত হওয়া ব্যক্তির বাড়ির আশপাশের কয়েকটি বাড়ি বাড়তি সতর্কতার জন্য লকডাউন করে রাখা হয়েছে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানা যায়, করোনায় শনাক্ত হওয়া তেঁতুলিয়া উপজেলার ব্যাক্তি একজন গার্মেন্টস কর্মী। সে বর্তমানে নিজ বাড়িতে রয়েছে। এ উপজেলার আক্রান্ত ব্যক্তি গত ৭ মে ঢাকা থেকে তার গ্রামের বাড়িতে ফিরলে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয় এবং দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপ্রীগঞ্জের আক্রান্ত ব্যাক্তি ১২ মে ঢাকা আসে। সে ঢাকার একটি কার শো-রুমের বয় ছিল।

উপজেলার আক্রান্ত অপর ২ জন গত ৩০ এপ্রিল ঢাকার কামরাঙ্গীর চর থেকে নিজ গ্রামের বাড়িতে আসে। ১৩ মে তাদের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে প্রেরণ করলে আজ ১৫ মে ওই ব্যক্তির নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

পঞ্চগড় সিভিল সার্জন ডা. ফজলুর রহমান জানান, এ পর্যন্ত পঞ্চগড় জেলায় মোট ১৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে তেঁতুলিয়া উপজেলার ১ জন ও দেবীগঞ্জে ৩ জন। তবে ইতিমধ্যে তেঁতুলিয়া উপজেলার ৪ জন, বোদার উপজেলার ১ জন ও দেবীগঞ্জ উপজেলার ২ জনসহ মোট ৭ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন। তারা তাদের নিজ বাড়িতে আছে।

এএসআর/জেডএস

 

: আরও পড়ুন

আরও