পর্দা চাই ঘরের সাথে মানানসই
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০ | ১৬ কার্তিক ১৪২৭

পর্দা চাই ঘরের সাথে মানানসই

পরিবর্তন ডেস্ক ৩:১৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৪, ২০২০

পর্দা চাই ঘরের সাথে মানানসই
ঘরের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলতে কত কিছুই তো ব্যবহার করি। একই সঙ্গে ভাবতে হয় সুরক্ষার বিষয়ও। ঘরের সাজসজ্জা, চলতি ফ্যাশন কিংবা সুরক্ষা এসব বিষয় মাথায় রেখেই ঘরণী ব্যবহার করেন বাহারি ডিজাইনের পর্দা। শুধু তাই নয়, পর্দার ফ্যাব্রিকেও চান নতুনত্ব, বৈচিত্র্য। কেউবা আরো এক ধাপ এগিয়ে, ঘর সাজানোর ক্ষেত্রে সাহায্য নেন ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের। এত কিছু কিন্তু ঘরের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলার জন্যই। ফলে ঘরণীর রুচি যেমন প্রকাশ পায়, তেমনি সৃজনশীলতাও ধরা দেয়। আর বাড়িও হয়ে ওঠে বেশ আকর্ষণীয়।

বসার ঘর থেকে শুরু করে খাবার ঘর, ঘরে রাখা আসবাবের আকৃতি, দেয়ালের রঙ, আসবাবের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে পর্দা বাছাই করা ভালো। অন্যদিকে আবহাওয়া বুঝে দুই সেট পর্দা বানিয়ে নিলে সুবিধা। মূলত গরম ও শীতকালের জন্য। গরমের জন্য বাছাই করুন হালকা রঙের পাতলা পর্দা, এতে বাতাস চলাচল সহজ হবে, যার ফলে গরমে পাবেন স্বস্তি। আর শীতে পর্দা অপেক্ষাকৃত মোটা বা ভারী কাপড়ের ও গাঢ় রঙের হওয়া উচিত। এ সময় ধুলাবালি বেশি হয়, তাই পর্দা ময়লা হলেও বোঝা যাবে না আর রুমে ঠাণ্ডাও লাগবে কম।

তবে এ দুই সেট পর্দার বাইরেও এক সেট আলাদা পর্দা রাখতে পারেন নিজের সুবিধার্থেই। সেক্ষেত্রে একটু দামি কাপড়, মখমল কিংবা নেটের তৈরি এক সেট পর্দা বেছে নিতে পারেন, যা বিশেষ কোনো দিনে ঘরের লুক বদলে দিতে সাহায্য করবে আপনাকে।

পর্দা নির্বাচনের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় মনে রাখবেন—
দেশি আমেজে ঘর সাজাতে চান যারা, তাদের জন্য ভালো সমাধান হচ্ছে চেক, ব্লক প্রিন্ট, বাটিক ও নকশিকাঁথার পর্দা বেছে নেয়া। কেননা এ ধরনের পর্দায় ষোল আনা বাঙালিয়ানা ফুটিয়ে তোলা সম্ভব।

যে ঘরে প্রচুর আলো-বাতাস খেলা করতে পারে, সেদিকের দরজা-জানালায় হালকা রঙের নেটের পর্দা ভালো লাগবে। শুধু তাই নয়, ধুলাবালিতে নোংরা হলেও সমস্যা নেই, কেননা নেটের পর্দা ধুয়ে ফেলা সহজ।

সিলিং উঁচু হলে মেঝে সমান পর্দা লাগান। অন্তত তিন মাস পর পর পর্দা ধোয়া উচিত এবং কাপড়ের ধরন অনুযায়ী ক্লথ কন্ডিশনার ব্যবহার করুন।

শিশুদের রুমের পর্দায় কার্টুন, ফুল, প্রজাপতি বেশ মানাবে।

প্রতিদিন বা একদিন পর পর ভেজা কাপড়ে গ্রিল ও শুকনা কাপড়ে ফার্নিচার মুছে নিলে পর্দা কম ময়লা হয়। চাইলে প্রতিদিন ব্রাশ দিয়ে গ্রিল ও ফার্নিচার হালকা ঝেড়ে নিতে পারেন, এতে আপনার বাসা দেখাবে ঝকঝকে।

ওএস/ইসি

 

আরও পড়ুন

আরও