বালিশ, টুথব্রাশ কত দিন পর বদলে ফেলা উচিত?
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ৫ এপ্রিল ২০২০ | ২২ চৈত্র ১৪২৬

বালিশ, টুথব্রাশ কত দিন পর বদলে ফেলা উচিত?

পরিবর্তন ডেস্ক ২:১২ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৩, ২০২০

বালিশ, টুথব্রাশ কত দিন পর বদলে ফেলা উচিত?

ভালো ফল পেতে ৩-৪ মাস অন্তর টুথব্রাশ বদলে ফেলা উচিত, এ কথা আমরা প্রায় সকলেই জানি। কিন্তু টুথব্রাশের মতোই গৃহস্থলির কাজে ব্যবহৃত এমন অনেক কিছুই একটা নির্দিষ্ট সময় পরপর বদলে ফেলা প্রয়োজন। আসুন এ বিষয়ে সবিস্তারে জেনে নেওয়া যাক।

১. গামছা বা তোয়ালে আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় একটি সামগ্রি। স্বাস্থ্য সম্মত উপায়ে প্রতিদিন ব্যবহারের পর গামছা বা তোয়ালে ভালো করে ধুয়ে দিন। গামছা প্রতি ৬ মাস অন্তর আর দুই থেকে তিন বছর অন্তর তোয়ালে বদলে ফেলা উচিত।

২. গোসলের সময় গায়ে সাবান মাখার কাজে ব্যবহৃত স্পঞ্জ বা লুফা প্রতি ৩-৪ মাস অন্তর বদলে ফেলা প্রয়োজন। গোসলের সময় ব্যবহারের পর ভালো করে ধুয়ে রাখুন।

৩. ঘরে পরার স্লিপার বা হাওয়াই চটি প্রতি ৬ মাস অন্তর বদলে ফেলা উচিত। মনে রাখবেন, খুব পাতলা বা শক্ত চটি আমাদের পায়ের জন্য ক্ষতিকর।

৪. আরামদায়ক ঘুম অনেকটাই নির্ভর করে বিছানা, বালিশ এবং ঘুমানোর পরিবেশের উপর। বিশেষ করে বালিশ ঠিকঠাক না হলে অনেকেই ঘুমোতে পারেন না ঠিক মতো। তাই বালিশটা হওয়া চাই একদম ‘পারফেক্ট’! বছরের পর বছর একই বালিশ ব্যবহার করবেন না। প্রতি ২-৩ বছর পর পর বালিশ বদলে ফেলুন বা বালিশের তুলো বদলে ফেলুন। আরামদায়ক ঘুম আসবে সহজেই।

৫. ভালো ফল পেতে ৩-৪ মাস অন্তর টুথব্রাশ বদলে ফেলা উচিত।

৬. শিশুদের ব্যবহৃত ল্যাটেক্স পেসিফায়ার বা চুশি কখনোই ৩-৪ সপ্তাহের বেশি ব্যবহার করা উচিত নয়। প্রতিদিন অন্তত ২ বার ল্যাটেক্স পেসিফায়ার গরম পানিতে ভালো করে ধুয়ে নেওয়া জরুরি।

৭. বেশি দিন থাকলে রান্নার মশলাপাতির স্বাদ বা গন্ধ নষ্ট হয়ে যায়। অনেক সময় তাতে ছত্রাকও জন্মে যায়। তাই বিশেষ করে গুঁড়ো মশলা ৬ মাসের বেশি না রাখাই ভালো।

ইসি/

 

জীবনযাত্রা: আরও পড়ুন

আরও