মধ্যবর্তী নির্বাচন ছাড়া পথ নেই: ডা. জাফরুল্লাহ
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০ | ১৫ কার্তিক ১৪২৭

মধ্যবর্তী নির্বাচন ছাড়া পথ নেই: ডা. জাফরুল্লাহ

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:০৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২০

মধ্যবর্তী নির্বাচন ছাড়া পথ নেই: ডা. জাফরুল্লাহ
ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করলেও নারীদের ওপর নির্যাতনের বিরুদ্ধে বর্তমান আন্দোলন সরকার কাটিয়ে উঠতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্ট্রি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

তিনি বলেছেন, একটি মধ্যবর্তী নির্বাচন ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সামনে আর কোনো পথ নেই। নির্বাচন ছাড়া এ সামাজিক রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার কোনো উপায় নেই।

আজ শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত ধর্ষণবিরোধী এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে ডা. জাফরুল্লাহ এ কথা বলেন।

নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিবাদে ওই মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী সংগ্রামী দল।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, অব্যাহত আন্দোলনকে মৃত্যুদণ্ডের বিধান (ধর্ষকদের) এবং অদ্ভুত বিবৃতি (মন্ত্রীদের) দিয়ে থামানো যাবে না। আমি এই রোগের একমাত্র চিকিত্সা বলতে চাই গণতন্ত্র, একটি বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন এবং জনগণের ক্ষমতায়ন।

তিনি বলেন, মধ্যবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হওয়া এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার না হওয়া পর্যন্ত জনগণকে একত্রিত করার জন্য এই আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকে ইঙ্গিত করে মুক্তিযোদ্ধা জাফরুল্লাহ বলেন, গণতন্ত্র ফিরিয়ে না দিয়ে তিনি একা দেশের বর্তমান সমস্যা সমাধান করতে পারবেন না।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের বিষয়ে কেন ভয় পাচ্ছেন? সামাজিক রোগ নিরাময়ের জন্য গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে একটি মধ্যবর্তী নির্বাচন দিন। আপনার উচিত সামগ্রিক পরিবর্তন এবং সকলের সাথে কথা বলার জন্য কমিশন করা (বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের ব্যবস্থা করার জন্য)।

তিনি ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধির বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে নারীদের সমান অধিকার এবং তাদের নিরাপত্তায় ব্যবস্থা নিতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান।

 ‘স্বাস্থ্য খাতে ব্যাপক দুর্নীতি’ প্রসঙ্গে এই মুক্তিযোদ্ধা বলেন, সরকার ‘চুরিতে চ্যাম্পিয়ন’ হয়েছে।

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আ ন ম এনছানুল হক মিলন, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুল হাই শিকদার, জাতীয়তাবাদী সংগ্রামী দলের আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

ওএস/এসবি

 

আরও পড়ুন

আরও