ছাত্রী ধর্ষণের দায়ে মাদরাসা শিক্ষকের কারাদণ্ড
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ৮ আগস্ট ২০২২ | ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯

>

ছাত্রী ধর্ষণের দায়ে মাদরাসা শিক্ষকের কারাদণ্ড

ফেনী প্রতিনিধি ৫:২৫ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০২২

ছাত্রী ধর্ষণের দায়ে মাদরাসা শিক্ষকের কারাদণ্ড
ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার পশ্চিম ছাগলনাইয়া এলাকায় প্রথম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের দায়ে হাফেজ আবু বকর (৩০) নামের এক মাদরাসা শিক্ষককে ১০ বছর কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার রায় দিয়েছেন আদালত।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক ওসমান হায়দার এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ২০১৬ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর পশ্চিম ছাগলনাইয়া এলাকার সাতবাড়ী রোডে ইকরা তালিমুল কোরআন (মাদরাসা) একাডেমি ছুটির পর প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অফিস কক্ষে ডেকে নেন শিক্ষক হাফেজ আবু বকর। দরজা বন্ধ করে তাকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। বাড়ি ফিরে কান্নাকাটি করে অভিভাবকদের জানালে তারা হাসপাতালে নিয়ে তাকে চিকিৎসা করায়। 

এ ঘটনায় তার মা বাদী হয়ে ছাগলনাইয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি ফরিদ আহম্মদ হাজারী জানান, এ ঘটনায় আদালতে ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। ঘটনার পর আসামি আবু বকর কারাভোগ করলেও জামিনে বেরিয়ে পালিয়ে যায়। তার অনুপস্থিতিতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে আসামির ১০ বছর কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার রায় ঘোষণা করা হয়। আবু বকর গ্রেফতারের দিন থেকে এ রায় কার্যকর হবে।

এসবি

 

আরও পড়ুন

আরও
               
         
close