সুগন্ধা-বিষখালীতে আরও দুই মরদেহ উদ্ধার
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ২৫ মে ২০২২ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

>

সুগন্ধা-বিষখালীতে আরও দুই মরদেহ উদ্ধার

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ৮:৪৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৮, ২০২১

সুগন্ধা-বিষখালীতে আরও দুই মরদেহ  উদ্ধার
ঝালকাঠিতে যাত্রীবাহী লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পঞ্চম দিনের উদ্ধার অভিযানে সুগন্ধা ও বিষখালী নদী থেকে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস ও কোস্টগার্ড সদস্যরা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করা একটি মরদেহের আনুমানিক বয়স হবে ৩২, অপরটির ১৩  বছর। একটি মরদেহের শরীরে আগুনে পোড়া চিহ্ন রয়েছে। তবে মরদেহ দুটির কোনো স্বজনকে এখনও পাওয়া যায়নি।

ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার শফিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টায় সুগন্ধা নদীতে ভেসে ওঠে এক যুবকের মরদেহ। স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে ডুবুরিদল মরদেহটি উদ্ধার করে। 

ডুবুরিদল জানিয়েছে, উদ্ধারকৃত যুবকের মুখমণ্ডল আগুনে পোড়া। গায়ে সোয়েটার রয়েছে। তবে এখনো তার পরিচয় শনাক্ত হয়নি।

অপরদিকে সুগন্ধা নদীর চরবাটারাকান্দা এলাকায় দুপুরে ভেসে ওঠা এক কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ নিয়ে মঙ্গলবার দুই জনেরসহ দুই দিনে নদী থেকে তিন জনের মরদেহ উদ্ধার হলো। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মৃত ব্যক্তির সংখ্যা (উদ্ধারকৃত) বেড়ে দাঁড়ালো ৪২ জনে।

এছাড়া সোমবার উদ্ধার হওয়া মরদেহটি শনাক্ত করেছেন স্বজনরা। ওই ব্যক্তি অভিযান লঞ্চের ক্যান্টিনের বাবুর্চি ছিলেন। তার নাম শাকিল আহম্মেদ (৩৫)। তিনি নারায়ণঞ্জের ফতুল্লার বাসিন্দা ছিলেন। তার মামা লুৎফর রহমান লাশ শনাক্ত করেন। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

এদিকে লঞ্চে আগুনের ঘটনায় সোমবার দিবাগত রাতে ঝালকাঠি থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। লঞ্চের মালিক হামজালাল শেখ ও স্টাফসহ আট জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত ১২ জনকে আসামি করা হয়েছে। লঞ্চ দুর্ঘটনায় নিহতের স্বজন মনির হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের মতো ঝালকাঠি সিআইডি পুলিশের পক্ষ থেকে শহরের পৌর মিনিপার্ক ডিএনএ টেস্টের জন্য এলাকায় স্বজনদের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। 

ঢাকা থেকে আসা ৩ সদস্যের ফরেনসিক দল, বরিশালের ক্রাইমসিন এবং ঝালকাঠি সিআইডির সদস্যরা এ নমুনা সংগ্রহ করছেন।

ওএস/এসবিসি 
 

আরও পড়ুন

আরও
               
         
close