বাড়িতে বাবার লাশ রেখে এইচএসসি পরীক্ষা দিলেন মেরাজ
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২২ | ১০ মাঘ ১৪২৮

বাড়িতে বাবার লাশ রেখে এইচএসসি পরীক্ষা দিলেন মেরাজ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি ৮:০৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০২, ২০২১

বাড়িতে বাবার লাশ রেখে এইচএসসি পরীক্ষা দিলেন মেরাজ
বাড়ির আঙ্গিনায় বাবার লাশ রেখে চোখে অশ্রু নিয়ে এইচএসসি পরীক্ষা হলে বসেছেন মেরাজ হক নামে এক শিক্ষার্থী।

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার সাইফুর রহমান সরকারি কলেজ পরীক্ষা কেন্দ্রের ৩ নম্বর কক্ষে বৃহস্পতিবার (২ ডিসেম্বর) সকালে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন তিনি। 

ওই পরীক্ষার্থীর বাবার নাম শরিফুল হক মিল্টন (৪৭)। তিনি বুধবার মধ্য রাতে হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুবরণ করেছেন নিজ বাড়ীতে। ফুলবাড়ী ডিগ্রী কলেজ থেকে কারিগরী শাখা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে মেরাজ। ওই পরীক্ষার্থীর বাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের হকটারী এলাকায়।

জানা গেছে, পরীক্ষার খাতায় প্রশ্নোত্তর লেখার সময় তার চোখ দিয়ে অশ্রু ঝরছিল। এ পরিস্থিতিতে পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী অন্যান্য পরীক্ষার্থী ও কক্ষ পরিদর্শক সবাই তাকে সান্ত্বনা দেন এবং সব ভুলে ভালোভাবে প্রশ্নোত্তর লেখার পরামর্শ দেন।

এদিকে মেরাজ হক শেষ পর্যন্ত পরীক্ষা দিয়ে স্বজনদের সাথে বাড়ি ফিরে যান। এরপর দুপুর আড়াইটার দিকে ৪৭ বছর বয়সী প্রয়াত পিতা শরিফুল হক মিল্টনের মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয় বলে জানিয়েছেন মেরাজ হকের খালু পলাশ হোসেন।

তিনি আরও জানান, তার ভায়রা ভাই শরিফুল হক মিল্টন ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের হকটারী গ্রামের অধিবাসী। গতকাল বুধবার (১ ডিসেম্বর) দিনগত রাত ১২টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি।

এদিকে সাইফুর রহমান সরকারি কলেজের ও পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, পরীক্ষার্থী মেরাজ হকের বাবার মৃত্যুর বিষয়টি আমরা শুনেছি। আমরা তাকে সান্তনা ও উৎসাহ দিয়েছি পরীক্ষা দিতে। তবে তার জন্য কোনো বিশেষ ব্যবস্থায় পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। সে সবার সঙ্গে স্বাভাবিকভাবেই পরীক্ষা দিয়েছে।

ওএস/এসবিসি  
 

আরও পড়ুন

আরও