টাঙ্গাইলে স্কুলছাত্রী হত্যার মূল সন্দেহভাজন আটক
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

টাঙ্গাইলে স্কুলছাত্রী হত্যার মূল সন্দেহভাজন আটক

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ১০:০৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০২১

টাঙ্গাইলে স্কুলছাত্রী হত্যার মূল সন্দেহভাজন আটক
টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে স্কুলছাত্রী ছুমাইয়া আক্তার হত্যার ঘটনায় সন্দেহভাজন প্রধান আসামি আহত মনির হোসেনকে (১৭) আটক করেছে র্যারব-১২ এর সদস্যরা।

বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃত মনির উপজেলার মশাজান গ্রামের মেহেরের ছেলে। 

গ্রেফতারকৃত মনির প্রেমে ব্যর্থ হয়ে প্রথমে ছুমাইয়াকে ছুরি দিয়ে হত্যা করে। পরে সে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করে বলে র্যা ব জানায়। মনির আহত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি ছিলো। 

এ ব্যাপারে র্যালব ১২ সিপিসি-৩ টাঙ্গাইলের কোম্পানীর কমান্ডার আব্দুল আল মামুন এ প্রতিবেদককে বলেন, বিভিন্ন ফুটেজ সংগ্রহ করে মনিরকে শনাক্ত করা হয়েছে। পরে তাকে রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে পরে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে। 

উল্লেখ্য, বুধবার সকালে উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার শামসুল হক কলেজের সামনে নির্মাণাধীন ভবনের সিঁডির নিচ থেকে ওই ছাত্রীর জবাই করা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। একই সাথে অপর এক কিশোরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। 

নিহত শিক্ষার্থী ছুমাইয়া আক্তার (১৫) উপজেলার পালিমা এলাকার ফেরদৌস রহমানে মেয়ে। তারা দুজনেই এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিলো। বর্তমানে মনির বাসের হেলপারি করতো।

এ ব্যাপারে কালিহাতী থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, এ ব্যাপারে এখনো মামলা দায়ের করা হয়নি। মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধিন। 

এইচআর
 

আরও পড়ুন

আরও