যৌতুক না পেয়ে গৃহবধূকে বাবার বাড়ি পাঠানোর দায়ে স্বামীর কারাদণ্ড
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

যৌতুক না পেয়ে গৃহবধূকে বাবার বাড়ি পাঠানোর দায়ে স্বামীর কারাদণ্ড

ফেনী প্রতিনিধি ৮:৩৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২১

যৌতুক না পেয়ে গৃহবধূকে বাবার বাড়ি পাঠানোর দায়ে স্বামীর কারাদণ্ড
ফেনী শহরের বিরিঞ্চি এলাকায় যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে এক নারীকে। এ ঘটনায় তার স্বামী জহিরুল ইসলাম সুজনকে দুই বছর কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।
আদালত সূত্র জানায়, ২০১০ সালের ২৪ মে ফুলগাজী উপজেলার পশ্চিম বশিকপুর গ্রামের মহিউদ্দিনের মেয়ে কোহিনুর আক্তারকে বিয়ে করেন বিরিঞ্চি তালতলা এলাকার বাসিন্দা জহিরুল ইসলাম সুজন (৩৮)। তাদের এক  ছেলে ও একটি মেয়ে রয়েছে। 

সুজন ইতিমধ্যে দ্বিতীয় বিবাহ করেন। ব্যবসা করতে কোহিনুরের পরিবারের কাছে গত বছরের ১২ ডিসেম্বর ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবী করেন। দাবীকৃত টাকা না পেয়ে স্ত্রী-সন্তানকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন। 

এ ঘটনায় গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর সুজনের বিরুদ্ধে যৌতুক মামলা দায়ের করেন। চলতি বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি তাকে গ্রেফতার করা হলে আপোষের শর্তে ৭ ফেব্রুয়ারি জামিনে মুক্তি পান।

আদালতের বেঞ্চ সহকারী মোহাম্মদ জাকির হোসেন জানান, পরবর্তীতে আপোষ-মীমাংসা না করে পালিয়ে যাওয়ায় সুজনের অনুপস্থিতিতে ৫ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। 

রবিবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ২য় আদালত এর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন যুক্তিতর্ক শুনানী শেষে জহিরুল ইসলাম সুজন (৩৮) কে তার বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ডও ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড  অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। রায় ঘোষনাকালে সুজন পলাতক ছিলেন। 

এসবিসি 
 

আরও পড়ুন

আরও