শ্রীমঙ্গলে প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণ মামলার অভিযুক্ত যুবক আটক
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ২ কার্তিক ১৪২৮

শ্রীমঙ্গলে প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণ মামলার অভিযুক্ত যুবক আটক

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি ১:১৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০১, ২০২১

শ্রীমঙ্গলে প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণ মামলার অভিযুক্ত যুবক আটক
মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে মক্তব থেকে বাড়ী ফেরার পথে ১১ বছরের এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় গ্রামবাসীর চাপে অভিযুক্ত ধর্ষক আক্কাস মিয়াকে তার পরিবার পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। 

সোমবার (৩০ আগস্ট) উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের ববানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের শিকার হওয়া কিশোরীর মামা জানিয়েছেন, আমার ভাগ্নি গত সোমবার সকাল সাতটার দিকে ববানপুর গ্রামের জামে মসজিদ থেকে ইসলামী শিক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে বাঁশ ঝাড়ের নিচে নিয়ে একই গ্রামের প্রতিবেশী বখাটে আক্কাস (২৮) তাকে ধর্ষণ করে। বাড়িতে আসার পর মায়ের চোখে তার অস্বাভাবিক আচরণ ধরা পড়ে। 

তিনি আরও জানিয়েছেন, এ সময় আমার ভাগ্নি বাথরুমে গিয়ে নিজেকে পরিষ্কার করতে চাইলে কিশোরীর মা কি হয়েছে জানতে চান। তখন সে জানায়,তাদের গ্রামের নওশাদ মিয়ার ছেলে আক্কাছ মিয়া তাকে ভয় দেখিয়ে এমনটা করেছে। সে জানায়, শুধু আজ নয় এর আগেও সে তার সাথে এ রকম করেছে। খবর পেয়ে গ্রামের মানুষ আক্কাস মিয়ার বাড়িতে গেলে আক্কাস মিয়া পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সোমবার রাতে গ্রামের মাতাব্বর আব্দুল মতিনের বাড়িতে গ্রামবাসী এ নিয়ে বৈঠকে বসে। বৈঠকের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আক্কাস মিয়ার পরিবারকে জানানো হয় আক্কাসকে দ্রুত পুলিশের হাতে তুলে দিতে। এরপর আক্কাসের পরিবার পার্শ্ববর্তী হবিগঞ্জ জেলার ভাদেশ্বর গ্রাম থেকে আক্কাসকে ধরে এনে রাত ৩টার দিকে গ্রামবাসীর হাতে তুলে দেয়। 

গ্রাম্য মুরব্বী আ: মতিন জানিয়েছেন, তার পরিবার থেকে আক্কাসকে ধরে এনে তাদের জিম্মায় নিয়ে আসলে তারা স্থানীয় মির্জাপুর ফাঁড়ি পুলিশকে অবগত করেন। ফাঁড়ি পুলিশের এস আই জামাল উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ গত মঙ্গলবার ভোর বেলা তাকে আটক করে শ্রীমঙ্গল থানায় সোপর্দ করেন। পুলিশ ধর্ষককে আদালতের নির্দেশে জেলা কারাগারে পাঠায়।

শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ মো.আব্দুছ ছালেক জানিয়েছেন, তারা ঘটনাটির খবর পেয়ে প্রতিবন্ধী কিশোরীর মেডিকেল পরীক্ষার জন্য মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠায়। এ ঘটনায় কিশোরীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেন। 

গ্রেপ্তারকৃত আক্কাস মিয়া প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ধর্ষণের অভিযোগ স্বীকার করেছে। তার জবানবন্দি রেকর্ড করার জন্য তাকে মৌলভীবাজার আদালতে পাঠানোর পর বিজ্ঞ আদালতের নির্দেশে পুলিশ তাকে কারাগারে পাঠায়।

এসকে
 

আরও পড়ুন

আরও