বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: ৭ জনের নামে হত্যা মামলা
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ৬ জুলাই ২০২০ | ২২ আষাঢ় ১৪২৭

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: ৭ জনের নামে হত্যা মামলা

পরিবর্তন প্রতিবেদক ১২:১৪ অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: ৭ জনের নামে হত্যা মামলা
বুড়িগঙ্গা নদীতে ময়ূর-২ লঞ্চের ধাক্কায় এম এল মর্নিং বার্ড লঞ্চ ডুবে হতাহতের ঘটনায় ঘাতক লঞ্চের মালিক-মাস্টারসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অবহেলাজনিত হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোরে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় মামলাটি করেন নৌপুলিশ সদরঘাট থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ শামসুল।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহজামান পরিবর্তন ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, মামলায় ঘাতক ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক, মাস্টার, সুকানিসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অবহেলার অভিযোগ এনে এই মামলা করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তের জন্য তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন। তাই তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার রাসেল সিকদার পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, আমাদের উদ্ধার অভিযান এখনও চলছে, তবে এখন পর্যন্ত নতুন কোন মরদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এখন পর্যন্ত ৩২ জনের মরদেহ ও দুইজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, যে ৩২ জনেত মরদেহ উদ্ধার করা হয়ে হয়েছে, এর মধ্যে পুরুষ ১৯ জন, নারী ৮ জন এবং ৩ জন শিশু রয়েছে। বাকি দুজনের বিষয়ে এখনও জানা যায়নি।

পরিচয় পাওয়া মৃত ৩০ জন হলেন- সত্যরঞ্জন বনিক (৬৫), মিজানুর রহমান (৩২), শহিদুল (৬১), সুফিয়া বেগম (৫০), মনিরুজ্জামান (৪২), সুবর্ণা আক্তার (২৮), মুক্তা (১২), গোলাম হোসেন ভুইয়া (৫০), আফজাল শেখ (৪৮), বিউটি (৩৮), ছানা (৩৫), আমির হোসেন (৫৫), মো. মহিম (১৭), শাহাদাৎ (৪৪), শামীম ব্যাপারী (৪৭), মিল্লাত (৩৫), আবু তাহের (৫৮), দিদার হোসেন (৪৫), হাফেজা খাতুন (৩৮), সুমন তালুকদার (৩৫), আয়শা বেগম (৩৫), হাসিনা রহমান (৪০), আলম বেপারী (৩৮), মোসা. মারুফা (২৮), শহিদুল হোসেন (৪০), তালহা (২), ইসমাইল শরীফ (৩৫), সাইফুল ইলাম (৪২), তামিম ও সুমনা আক্তার।

উল্লেখ্য, সোমবার সকালে এমএল মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের কাঠপট্টি এলাকা থেকে সদরঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়। সদরঘাটের কাছেই ফরাশগঞ্জ ঘাট এলাকায় নদীতে ময়ূর-২ নামের অপর একটি বড় লঞ্চের ধাক্কায় 'মর্নিং বার্ড' লঞ্চটি ডুবে যায়।

পিএসএস

 

: আরও পড়ুন

আরও