বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: উদ্ধারকাজের খোঁজ-খবর রাখছেন প্রধানমন্ত্রী
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৭

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: উদ্ধারকাজের খোঁজ-খবর রাখছেন প্রধানমন্ত্রী

পরিবর্তন প্রতিবেদক ২:৫৭ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: উদ্ধারকাজের খোঁজ-খবর রাখছেন প্রধানমন্ত্রী
বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবিতে প্রাণহানির ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি সার্বক্ষণিক উদ্ধার কাজের খোঁজ-খবর রাখছেন বলে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে জানানো হয়, সরকারপ্রধান লঞ্চডুবিতে প্রাণহানির ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। তিনি নিহতদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন এবং তাদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

সোমবার সকাল নয়টার দিকে এমএল মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের কাঠপট্টি এলাকা থেকে সদরঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়। সদরঘাটের কাছেই ফরাশগঞ্জ ঘাট এলাকায় নদীতে ময়ূর-২ নামের অপর একটি বড় লঞ্চের ধাক্কায় 'মর্নিং বার্ড' লঞ্চটি ডুবে যায়। লঞ্চে ৫০ যাত্রী ছিল জানা গেছে।

এখন পর্যন্ত অন্তত ৩০টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আরও অনেকে এখনও নিখোঁজ আছেন। তাদের সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট, নৌবাহিনীর ডুবুরি দলের সদস্য ও স্থানীয়রা।

দুপুরে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সদর দফতরের ডিউটি অফিসার রোজিনা আক্তার পরিবর্তন ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এদের মধ্যে বেশ কয়েকজন নারী ও শিশু রয়েছে।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার পরিদর্শক মো. আশিক জানান, মুন্সীগঞ্জের কাঠপট্টি থেকে ৫০ জন যাত্রী নিয়ে মর্নিং বার্ড নামের একটি ছোট লঞ্চ ঢাকায় আসছিল। শ্যামবাজার এলাকায় চাঁদপুর থেকে আসা ময়ূর-২ লঞ্চের সঙ্গে এর সংঘর্ষ হয়। এ সময় মনিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়।

লঞ্চটি উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা কাজ করছেন। এছাড়াও নৌপুলিশ ও নৌবাহিনী কাজ করছে। উদ্ধার কাজে সহযোগিতা করতে নারায়ণগঞ্জ থেকে একটি জাহাজ ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছে।

পিএসএস

 

: আরও পড়ুন

আরও