করোনায় মারা যাওয়া বাবাকে সন্তানের শেষ আদর
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭

করোনায় মারা যাওয়া বাবাকে সন্তানের শেষ আদর

পরিবর্তন ডেস্ক ৬:৩৭ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০২০

করোনায় মারা যাওয়া বাবাকে সন্তানের শেষ আদর
করোনা ভাইরাস বিশ্ববাসীর চোখের সামনে আঙ্গুল তুলে অনেক কিছুই দেখিয়েছে। মানুষ মানুষের কাছ থেকে এতটা দূরত্ব বজায় রেখে চলেনি কখনোই। অথচ আজ এই ভাইরাসের জন্য মানুষ মানুষের কাছ থেকে নির্দিষ্ট দূরত্বে থাকছে।

এই রোগ নিয়ে কেউ মারা গেলে, পরিবারের মানুষরাও কেউ সামনে যাওয়ার সাহস করে না এমন পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়াতে হয়েছে আমাদের। শেষকৃত্যেও পাওয়া যাচ্ছে না প্রিয়মুখগুলোকে। রাস্তায় মানুষের নিথর দেহ পড়ে থাকলেও সামনে দাঁড়ানোর কেউ নেই। এমন অসংখ্য মর্মান্তিক ও হৃদয় বিদারক দৃশ্য সমগ্র বিশ্বজুড়ে আজকাল অহরহ দেখা যাচ্ছে।

তবে সম্প্রতি বিদ্যুৎ বড়ুয়া নামে এক চিকিৎসক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। যেটি দেখলে যে কোন মানুষ গভীর কান্নায় ভেঙে পড়বেন। চট্টগ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন এক ব্যক্তি। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, তার ৭ বছরের সন্তান এসে বাবাকে শেষবারের মতো স্পর্শ করলো।

পোস্টের নিচে ওই ডাক্তার লিখেছেন, চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালে বেদনাবিধুর বাস্তবতা। গত ২০ মে ৪০ বছরের রোগী জীবনের শেষ মুহূর্তে চিকিৎসা নিতে এসেছিল আমাদের চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালে। রোগীকে প্রথম দেখায় বুঝতে পেরেছিলাম জীবনের সময় বেশি নেই। তবু চেষ্টা করেছিলাম আমাদের সামর্থ নিয়ে রোগীকে বাঁচাতে। রোগীর অভিভাবকও বুঝতে পেরেছিল রোগীর পরিণতি। করোনা টেস্ট হয়নি কিন্তু সকল লক্ষণ করোনা ভাইরাস জনিত। অবশেষে মারাও গেলেন ১৩.৩০ ঘণ্টা পর।

রোগীর অভিভাবক হিসেবে সাথে ছিলেন তার স্ত্রী। স্ত্রীকে জিজ্ঞেস করতেই বললো তাদের ৭ বছরের সন্তান আছে। সাধারণত করোনাজনিত লক্ষণে মারা গেলে সিভিল সার্জন অফিসে জানাতে হয়। পরে সিভিল সার্জন নির্ধারিত প্রক্রিয়ায় দ্রুত দাফন করা হয়। কিন্তু আত্মীয় স্বজন কারও মৃত ব্যক্তিকে দেখার সুযোগ হয় না। আমি মৃত রোগীর অভিভাবক স্ত্রীকে বললাম আপনাদের সন্তান কি তার বাবাকে দেখবে না? উত্তরে বললো বাসায় কেউ নাই আর কিভাবে আসবে। পরে সিভিল সার্জন কতৃপক্ষ নিয়ে গেলে সন্তান বাবাকে দেখতে পারবে না।

আমি বললাম আপনি বাসায় গিয়ে আপনাদের সন্তানকে নিয়ে আসেন আমাদের হাসপাতালের গাড়ি নিয়ে। তাই হলো মা সন্তানকে আমাদের গাড়িতে করে নিয়ে আসলো। সন্তান বাবাকে তার শেষ স্পর্শ আদর দেওয়ার মুহূর্ত- ( তাদের সন্তানের সাথে আলাপে তার বাবা সম্পর্কে অনেক কিছু জানা হলো- কষ্ট হলো অনেক, ৭ বছরের সন্তান তার বাবাকে হারালো)।

ওএস/পিএসএস

 

: আরও পড়ুন

আরও