স্বাস্থ্যকর চুল ও ত্বকের জন্য পালং
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ২ কার্তিক ১৪২৮

স্বাস্থ্যকর চুল ও ত্বকের জন্য পালং

পরিবর্তন ডেস্ক ১:৫১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২১

স্বাস্থ্যকর চুল ও ত্বকের জন্য পালং
প্রাকৃতিকভাবে উজ্জ্বলতা বাড়াতে এই সবুজ শাকের বিকল্প নেই শৈশবে অনেকেরই পছন্দের একটি কার্টুন চরিত্র ছিল, পাপাই, দ্য সেলর ম্যান। কোনও পরিস্থিতিতে শক্তি পাওয়ার জন্য সে পালং শাক খেত। আর সেই দেখে পালং শাক খাওয়ার প্রতি আকর্ষণ তৈরি হয়। তবে অনেকেই রয়েছেন এই সুপারফুড শাকটিকে পছন্দ করেন না। ভিটামিন , খনিজ পদার্থ, ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস ও আয়রন এবং অন্যান্য সব পুষ্টিতে ভরপুর এই পালং শাক নিয়মিত ডায়েটে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত। সুস্থ থাকতে তো বটেই, ত্বক ও চুলের ক্ষেত্রেও এই ম্যাজিক্যাল ভেজিটেবলের উপর ভরসা রাখা যায় ১০০ শতাংশ।

ত্বক সুস্থ রাখতে- পালং শাকে রয়েছে ভিটামিন এ ও সি-এর দুর্দান্ত উত্সা। ক্ষতিগ্রস্ত ও নিস্তেজ ত্বকের গঠনকে মেরামত করার জন্য ত্বকের কোষের সংখ্যা বৃদ্ধি করে। পালং শাকের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও পুষ্টি ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে। প্রাকৃতিকভাবে উজ্জ্বলতা বাড়াতে এই সবুজ শাকের বিকল্প নেই।

অতিবেগুনি রশ্মির ভালো সুরক্ষক- পালং শাকে রয়েছে ভিটামিন বি-এর উপস্থিতি। যা ত্বককে সূর্যের রশ্মি থেকে রক্ষা করার জন্য শিল্ড হিসেবে কাজ করে। এছাড়া ত্বকের ক্যানসার ও ত্বকের অন্যান্য সমস্যার সম্ভাবনাকে রোধ করতে পারে।

অ্যান্টি-এজিং এজেন্ট হিসেবে কাজ করে- এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা শরীরের ক্ষতিকারক ফ্রি-র্যা ডিক্যালগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই করে পালং শাকের গুণ আশ্চর্যজনকভাবে ত্বকের অ্যান্টি-এজিং এজেন্ট হিসেবে কাজ করতে সহায়তা করে। ত্বকের অকাল বার্ধক্য রোধের জন্য নিয়মিত ডায়েটে পালং শাককে তালিকাভুক্ত করুন। ত্বকের তারুণ্য বজায় রাখতে ও সতেজ রাখতে সাহায্য করে।

ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে- পানির সঙ্গে পালং শাক পেস্ট করে একটি ফেসপ্যাক তৈরি করুন। ২০ মিনিটের জন্য মুখের ত্বকের উপর লাগিয়ে অপেক্ষা করুন। ত্বকের ময়লা, তৈলাক্ততা ও জ্বালাভাব দূর করতে দারুণ কার্যকরী। এছাড়া ব্রণর প্রবণতা হ্রাস করতে পালং শাকের জুস বা স্যুপ তৈরি করে খেতে পারেন।

চুল পড়া বন্ধ করে- আয়রনের অভাবে চুলের ক্ষতি হয়, যা চুলের গোড়া আলগা হয়ে যায়। চুলের ক্ষতি মোকাবিলা করার জন্য পালং শাক খাওয়া অত্যন্ত জরুরি। এতে রয়েছে ফোলেট ও আয়রন, যা লোহিত রক্তকনিকা তৈরি করতে সক্ষম ও কোষের মধ্যে অক্সিজেন জোগান দিতে সহায়তা করে। গোটা প্রক্রিয়াটাই চুল পড়া বন্ধ করতে সক্ষম।

চুলের বৃদ্ধিতে – অতি-স্বাস্থ্যকর সবুজ পালং শাকে রয়েছে ভিটামিন বি, সি ও ই, পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম ও ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের একটি চমত্কাসর সংমিশ্রণ, যা চুলের গোড়া মজবুত করে, চুলের বৃদ্ধি ঘটাতে সাহায্য করে। স্বাস্থ্যকর চুল বৃদ্ধিতে পালং শাকের জুড়ি নেই।

ইসি
 

আরও পড়ুন

আরও