ঝিনাইদহে ঘুমন্ত শিশুর পাশেই মাকে কুপিয়ে হত্যা
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ | ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ঝিনাইদহে ঘুমন্ত শিশুর পাশেই মাকে কুপিয়ে হত্যা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ৪:১৫ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০২০

ঝিনাইদহে ঘুমন্ত শিশুর পাশেই মাকে কুপিয়ে হত্যা
ঝিনাইদহের মহেশপুরে রাফেজা খাতুন রত্না ওরফে লতি (২৬) নামে এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার ভোররাতের যে কোনো সময় তাকে নিজ ঘরে কুপিয়ে জখম করা হয়।

নিহত গৃহবধূ মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর ইউনিয়নের বদ্দিপুর গ্রামের রমজান আলীর স্ত্রী। রমজান বর্তমানে একটি মাদক মামলায় জেলহাজতে রয়েছেন। 

মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবিএম শহীদুল ইসলাম জানান, ঘটনার রাতে রমজানের স্ত্রী তার শিশুসন্তান নিয়ে নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাতের কোনো এক সময় কে বা কারা তাকে কুপিয়ে রেখে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান লতি। 

স্থানীয় এই জনপ্রতিনিধি জানান, নিহত রাফেজার স্বামী একজন মাদক ব্যবসায়ী। কয়েক মাস আগে প্রতিদ্বন্দ্বী মাদক ব্যবসায়ীরা তাকে পুলিশে ধরিয়ে দেয়। সে মামলায় বর্তমানে তিনি জেলে রয়েছেন। ধারণা করা হচ্ছে, মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে দ্বন্দ্বের জের ধরে রমজানের স্ত্রীকে হত্যা করা হতে পারে। 

মহেশপুর থানার ওসি মোর্শেদ হোসেন খান জানান, গেলরাতে গৃহবধূ রাফেজা খাতুন লতি দেড় বছরের সন্তানসহ নিজ ঘরে ঘুমিয়েছিলেন। আনুমানিক ভোর রাত তিনটার দিকে ঘরের জানালা খুলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দৃর্বৃত্তরা তার ঘাড়ে আঘাত করে। চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ছয়টার দিকে মারা যান ওই গৃহবধূ। 

কে বা কারা কেন এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে জানিয়ে ওসি বলেন, নিহতের স্বামী মাদক মামলায় জেলহাজতে রয়েছেন। 

এসএ/এইচকে

 

: আরও পড়ুন

আরও