এনজিওর কিস্তি দিতে যাওয়ার সময় গৃহবধূকে ধর্ষণ
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০ | ২০ চৈত্র ১৪২৬

এনজিওর কিস্তি দিতে যাওয়ার সময় গৃহবধূকে ধর্ষণ

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ৩:০৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৫, ২০২০

এনজিওর কিস্তি দিতে যাওয়ার সময় গৃহবধূকে ধর্ষণ

চুয়াডাঙ্গায় এক গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে গৃহবধূর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পূর্ণ হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে চুয়াডাঙ্গা শহরের শান্তি পাড়ায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকে ওই গৃহবধূ বাড়ি থেকে বের হয়ে এনজিওর কিস্তির টাকার দিতে যাচ্ছিলেন। এসময় চুয়াডাঙ্গা শহরের শান্তি পাড়ার আলমঙ্গীর হোসেনের ছেলে নাইমের বাড়ির সামনে পৌঁছালে ওঁত পেতে ছিল একই পাড়ার আলমঙ্গীর হোসেনের ছেলে নাইম, খোকন আলীর ছেলে অপু ও একই পাড়ার রতন আলী জোরপূর্বক তাকে নাইমের বাড়িতে নিয়ে যায়।

গৃহবধূকে মারপিট করে জোরপূর্বক নাইমের ঘরে নিয়ে যায় অভিযুক্ত তিন যুবক। পরে বাইরে থেকে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেই অপু ও রতন আলী। এসময় নাইম ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক গৃহবধূকে ধর্ষণ করে।

গৃহবধূ বাড়ি ফিরে বিষয়টি পরিবারের সদস্যদের জানায়। বিকালে গৃহবধূ চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় উস্থিত হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে অভিযোগ দায়ের করেন। পরে সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে গৃহবধূর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পূর্ণ হয়।

এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান জানান, চুয়াডাঙ্গা শহরের শান্তি পাড়ায় গৃহবধূ ধর্ষণের অভিযোগে একটি মামলা হয়েছে। মামলার তদন্ত কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশি অভিযান শুরু হয়েছে।

এআই/জেডএস

 

সমগ্রবাংলা: আরও পড়ুন

আরও