হত্যা মামলায় পলাতক হয়েও ২৮টি সিনেমায় অভিনয়!
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২ | ২ ভাদ্র ১৪২৯

>

হত্যা মামলায় পলাতক হয়েও ২৮টি সিনেমায় অভিনয়!

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:২৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ০৫, ২০২২

হত্যা মামলায় পলাতক হয়েও ২৮টি সিনেমায় অভিনয়!
হত্যা মামলায় এক দু বছর নয়, ৩০ বছর ধরে পলাতক ছিলেন ভারতের হরিয়ানা রাজ্যের এই ‘প্রতিভাবান’ ব্যক্তি। এতদিন লুকিয়ে ছিলেন পাশের রাজ্যে উত্তর প্রদেশে। এর মধ্যে বদলে গেছে তার জীবনের অনেক কিছু। একে একে ২৮টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন, করেছেন পুলিশের চরিত্রও।

এবার সেই ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ আসামিকে ধরে ফেলেছে পুলিশ। উত্তর প্রদেশের গজিবাদ শহরের বস্তি থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

৬৫ বছর বয়সী ওম প্রসাদ পাশা নামেও পরিচিত। ডাকাতি ও হত্যা মামলার এই আসামিকে বহু বছর ধরে খুঁজছিল পুলিশ।

মামলায় জড়িয়ে পড়ার পর সাবেক এই সেনা সদস্যের নতুন এক জীবন শুরু হয়। পালিয়ে তিনি যেখানে আশ্রয় নেন, সেখানে এক নারীকে বিয়ে করে গড়ে তোলেন সংসার। তিন সন্তানের জন্ম হয় এ পরিবারে।

পুলিশ বলছে, গ্রেফতারের আগে পর্যন্ত ওম প্রকাশ বেশ কয়েকটি টুপি পরে ঘুরে বেড়াতেন, কখনও ট্রাক চালাতেন, গ্রামে ঘুরে ঘুরে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ভক্তিমূলক গান গাইতেন।

এমনকি স্বল্প বাজেটের স্থানীয় ২৮ সিনেমায় তিনি অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে পুলিশের পোশাকেও তাকে পর্দায় হাজির হতে দেখা গেছে।

অভিযোগের বিষয়ে ওম প্রকাশের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে তাকে গ্রেফতারে অংশ নেয়া হরিয়ানার স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের উপপরিদর্শক বিবেক কুমারা বলেছেন, ১৯৯২ সালের হত্যাকাণ্ডের জন্য আরেকজনকে দায়ী করেছে এই আসামি।

ওম প্রকাশের স্ত্রী রাজকুমারী বলেন, ২৫ বছর ধরে রাজকুমারীর সঙ্গে ওম প্রকাশের সংসার।  আসলে তার অতীতের অপরাধ নিয়ে আমরা কিছুই জানতাম না।

তিনি বলেন, ১৯৯৭ সালে আমাদের বিয়ে হয়। তার যে হরিয়ানায় আগের এক স্ত্রী আছে, সে তথ্যও আমার কাছে লুকিয়েছে।

হরিয়ানার নারিয়ানা গ্রামের এক বাসিন্দা জানান, ভারতীয় সেনাবাহিনীতে ১২ বছর ধরে ট্রাক চালিয়েছেন ওম প্রকাশ। তবে চার বছর ধরে কর্মস্থলে অনুপস্থিত থাকার কারণে তার চাকরি চলে যায়।

ওম প্রকাশের বিরুদ্ধে চুরি-ডাকাতির অভিযোগ অনেক পুরোনো। ১৯৮৬ সালে একটি গাড়ি, তার চার বছর পর স্কুটারসহ আরও কিছু চুরির অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে।

১৯৯২ সালের জানুয়ারিতে বাইকে থাকা এক ব্যক্তিকে ছুরিকাঘাত করে ওম ও তার সহযোগীরা তার বাইক নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। ওই সময় তার সহযোগী গ্রেফতার হলেও পালিয়ে নিরুদ্দেশ হন ওম।

ওএস/এএইচএ
 

আরও পড়ুন

আরও
               
         
close