টাইট অন্তর্বাস অত্যন্ত বিপজ্জনক!
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২১ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

টাইট অন্তর্বাস অত্যন্ত বিপজ্জনক!

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১

টাইট অন্তর্বাস অত্যন্ত বিপজ্জনক!
ব্রিফ বলুন। বিকিনি বলুন। বা থঙ্গস। সময় এসেছে, নিজের মনের মতো সঠিক অন্তর্বাসটিকেও খুঁজে নেওয়ার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভুল অন্তর্বাস পরার কারণে শারীরিক ক্ষতির আশঙ্কা থাকে। তাই পোশাক যেমন দেখে কেনেন, তেমনই শুধু রং কিংবা ডিজাইন নয়, অন্তর্বাস কেনার সময়ও সতর্ক থাকুন। তা যেন অবশ্যই সঠিক সাইজের হয়।

কী বলছে গবেষণা?
ধূমপান, মদ্যপান, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন ইত্যাদি পুরুষের বন্ধ্যাত্বের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে, এ কথা কমবেশি এখন অনেকেরই জানা। কিন্তু জানেন কী, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির গবেষণা বলছে, ছেলেদের আঁটসাঁট অন্তর্বাসের কারণে শুক্রাণু বা স্পার্ম কাউন্ট কমে যেতে পারে। ‘হিউম্যান রিপ্রোডাকশন’ জার্নালে প্রকাশিত তথ্য বলছে, বক্সার জাতীয় অন্তর্বাস পরলে শুক্রাণুর সংখ্যা বা ঘনত্ব বেশি ভালো থাকে।

এবার আসা যাক মেয়েদের কথায়। আমেরিকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ হেলথের একটি জার্নালে প্রকাশিত রিপোর্ট বলছে, মেয়েরা যদি নিজের সাইজের থেকে ছোট প্যান্ট বা অন্তর্বাস পরেন, তাহলে তাদের ইউরিনারি ট্রাক ইনফেকশন হওয়ার আশঙ্কা বাড়ে। খুব টাইট প্যান্ট পরার কারণে গোপনাঙ্গে ইস্ট ইনফেকশন হতে পারে।

ফিটিংস মানেই এক সাইজ ছোট নয়
আর যেকোনো একটা অন্তর্বাস নয়। স্টাইল করতে ও টাইট রাখতে গিয়ে এক সাইজ ছোট অন্তর্বাসের দিকে ঝুঁকবেন না। এই প্রবণতা অনেকেরই থাকে। এতে ক্ষতি অনেক। পোশাক কেনার মতোই অন্তর্বাস কেনার আগেও বিশেষ সচেতন থাকুন। এক্সারসাইজের সময় বিশেষ ধরনের (যেমন স্পোর্টস ব্রা) অন্তর্বাস ব্যবহার করুন। খুব টাইট অন্তর্বাস পরলে ঘাম জমে চুলকানি হতে পারে। অন্তর্বাস কেনার সময় খেয়াল রাখুন, তা যেন সুতির বা অন্য কোনো নরম কাপড়ে হয়। যাতে র্যা শ না হয়। নিজের সাইজ না জানলে, যেখান থেকে কিনছেন, সেই দোকানের কারও সাহায্য নিন।

ইংরেজিতে একটা বাক্য এখন দারুণ জনপ্রিয়। ‘ব্রালেস ইজ ফ্ললেস’। হলিউডের বিয়ন্সে, রিয়ানা থেকে কেট হাডসন। এমনকী, মেট গালার মতো আন্তর্জাতিক মঞ্চে একাধিক তারকা ‘ব্রালেস’ ধরা দিয়েছেন পাপারাৎজির ক্যামরায়। আর আজকাল বাড়ি থেকে কাজের জমানায় ‘ব্রালেস’ জীবন ভালোভাবে মানিয়ে যায় কর্মব্যস্ত সাধারণ মেয়েদের জীবনেও। গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে, সারা দিন চাপা অন্তর্বাস পরে থাকলে বুকের হাড়ে ক্ষতি হতে পারে। পিঠে ব্যথা হতে পারে এমনকী, কিছু কিছু গবেষণা বলছে, স্তনে ক্যানসার পর্যন্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

বিপদ এড়াতে
অন্তর্বাস কেনার সময় আরাম ও সুস্থতার দিকে খেয়াল রাখুন। 
ফ্যান্সি ফ্যাব্রিক না কিনে সুতির অন্তর্বাস কিনুন।
সারাদিন একই অন্তর্বাসে কাটাবেন না।
এক থেকে দেড় মাস পর নতুন অন্তর্বাস কেনা একান্তই জরুরি।
এক্সারসাইজের সময় সাধারণ অন্তর্বাস নয়। ঘাম জমে ব্যাকটেরিয়াল সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়ে।
ঘুমানোর সময় অন্তর্বাস পরবেন না।
অন্তর্বাস সবসময় হাতে পরিষ্কার করুন। ওয়াশিং মেশিন বা ড্রায়ারে পরিষ্কার করবেন না।

ওএস/ইসি
 

আরও পড়ুন

আরও