পিএসজিকে কষ্টে জেতালেন নেইমার
Back to Top

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারি ২০২১ | ৭ মাঘ ১৪২৭

পিএসজিকে কষ্টে জেতালেন নেইমার

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৫, ২০২০

পিএসজিকে কষ্টে জেতালেন নেইমার
পিএসজি উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বর্তমান রানার্সআপ। অথচ সেই পিএসজি শিবিরে এবার গ্রুপপর্ব থেকেই বাদ পড়ার শঙ্কাটা দানা বেঁধে উঠেছিল। প্রথম ৩ ম্যাচের ২টিতেই হার, শঙ্কাটা দানা বাঁধার কারণ যথেষ্টই ছিল। তবে শঙ্কাটা কাল অনেকটাই হালকা করেছে ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। কাল নিজেদের ঘরের মাঠে জয় পেয়েছে পিএসজি। তবে জার্মান ক্লাব লেইপজিগের বিপক্ষে পিএসজি জয়টা পেয়েছে কষ্টে, ১-০ গোলে। দলকে কষ্টের এই জয়টা উপহার দিয়েছেন নেইমার। ম্যাচের একমাত্র গোলটা করেছেন ব্রাজিল তারকা। গোলটা অবশ্য তিনি করেছেন পেনাল্টি থেকে।

তা যে পথেই আসুক, গোল তো গোলই। আর কাল নেইমারের পেনাল্টি গোলেই স্বস্তির জয় পেয়েছে পিএসজি। হালকা হয়েছে বুকে চেপে বসা শঙ্কার কালো মেঘ। পাশাপাশি প্রতিশোধও নিয়েছে পিএসজি। আগের লেগে লেইপজিগের মাঠে গিয়ে ২-১ গোলে হেরে এসেছিল পিএসজি। লেইপজিগের মাঠের সেই হারটিই মূলত পিএসজিকে গ্রুপপর্ব থেকে বাদ পড়ার শঙ্কায় ডুবিয়ে দেয় বেশি। সেই শঙ্কা হালকা করতে কাল জয়টা অবশ্যই দরকার ছিল। কষ্টে হলেও নেইমারের সুবাদে সেটা পিএসজি পেয়েছে।

জয়ের নেশায় নিজেদের মাঠে সর্বোচ্চ শক্তি নিয়েই নামে পিএসজি। কোচ টমাস টাচেল শুরুর একাদশে আক্রমণ সাজান নেইমার, কিলিয়ান এমবাপে, অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়াকে দিয়ে। সর্বশক্তি নিয়ে মাঠে নামা পিএসজি ম্যাচের শুরু থেকে প্রতিপক্সের উপর ঝাপিয়েও পড়ে। শুরুতেই গড়তে থাকে একের পর এক আক্রমণ। ঠিক এরকম এক আক্রমণ থেকে ম্যাচের ৯ মিনিটে পেনাল্টি পেয়ে যায় পিএসজি। বল নিয়ে লেইপজিগের বক্সে ঢুকে পড়েন আর্জেন্টাইন তারকা অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া।

বিপদ বুঝে তাকে কড়া ট্যাকল করেন লেইপজিগের ডিফেন্ডার মার্সেল সাবতজের। কিন্তু বিপদ বুঝে ফাউল করে তিনি উল্টো নিজের দলকেই আরও বড় বিপদে ফেলে দেন। ভিএআরের সহায়তা নিয়ে রেফারি বাজান পেনাল্টির বাঁশি। ১১ মিনিটে ওই পেনাল্টি থেকে গোল করে ফরাসি জায়ান্টদের এগিয়ে দেন নেইমার। শেষ পর্যন্ত নেইমারের এই গোলটিই গড়ে দিয়েছে ম্যাচের ভাগ্য।

কষ্টের এই জয়ে পিএসজির শেষ ষোলতে উঠার আশাটা জিঁইয়ে রইল দারুণভাবেই। কারণ, এই জয়ের মধ্যদিয়ে ৪ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে এইচ গ্রুপের পয়েন্ট তালিকার ২ নম্বরে উঠে এসেছে পিএসজি। তাদের সমান ৬ পয়েন্ট লেইপজিগেরও। তবে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় জার্মান ক্লাবটি রয়েছে ৩ নম্বরে। গ্রুপের শীর্ষে যথারীতি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। যারা কাল নিজেদের শাঠে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ইস্তানবুল বাসাকসেহিরকে।

শুধু পিএসজি-ম্যানইউ নয়, কাল দিনের ৮টি ম্যাচই জয় দেখেছে। অন্য ম্যাচগুলোতে জিতেছে চেলসি, বার্সেলোনা, জুভেন্টাস, বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, সেভিয়া ও লাৎসিও।

কেআর

 

আরও পড়ুন

আরও