রিয়ালের ২৫০ মিলিয়নের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন মেসি
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ১ নভেম্বর ২০২০ | ১৭ কার্তিক ১৪২৭

রিয়ালের ২৫০ মিলিয়নের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন মেসি

পরিবর্তন ডেস্ক ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২০

রিয়ালের ২৫০ মিলিয়নের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেন মেসি
বার্সেলোনায় খেলার সুবাদে তাদের চিরশত্রু রিয়াল মাদ্রিদের প্রতি লিওনেল মেসির বিরাগ থাকাটা স্বাভাবিক। তাই বলে রিয়ালের প্রতি মেসির এতোটা বিরাগ? আসলে মেসির মনে রিয়ালের কোনো জায়গাই নেই! রিয়ালের প্রতি মেসির বিরাগ কতটা, সেটি এবার ফুটে উঠলে নতুন এক খবরে। ক্ষোভ এতোটাই প্রবল যে, রিয়ালের ২৫০ মিলিয়ন ইউরোর লোভনীয় প্রস্তাবও এক ঝাটকায় প্রত্যাখ্যান করেছিলেন মেসি।

ইতালির বর্ষিয়ান ক্রীড়া সাংবাদিক জিয়ানলুকা ডি মারজিও’র দাবি অন্তত সে রকমই। ২০০৮ সালে বার্সেলোনা ছাড়েন রোনালদিনহো। এই ব্রাজিলিয়ান চলে যাওয়ার পর থেকেই ন্যু-ক্যাম্পের প্রতীক হয়ে আছেন লিওনেল মেসি। কিন্তু জিয়ানলুকা ডি মারজিও’র দাবি অনুযায়ী, বার্সেলোনার নয়, মেসি এতো দিনে হয়ে উঠতে পারতেন রিয়াল মাদ্রিদের প্রতীক। সেই ২০১৩ সালেই যে মেসির সামনে সুযোগ এসেছিল বার্সেলোনা ছেড়ে রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেওয়ার।

মারজিও’র দাবি, ২০১৩ সালে মেসিকে ২৫০ মিলিয়ন ইউরোর আকর্ষণীয় প্রস্তাব দিয়েছিল রিয়াল। মেসি চাইলেই লোভনীয় এই টোপ গিলে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে যেতে পারতেন। কিন্তু রিয়ালের সেই অতি-আকর্ষণীয় প্রস্তাবও তিনি বিনা ভাবনায় সবিনয়ে ফিরিয়ে দেন। রিয়ালের নতুন স্টেডিয়াম এস্তাদিও সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর পুর্ননির্মাণের জন্য যে তহবিল গঠন করা হয়েছিল, তা থেকেই মেসির পেছনে ২৫০ মিলিয়ন ঢালতে চেয়েছিলেন ক্লাব সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ।

মারজিও’র দাবি, মেসির কাছে প্রস্তাবটি রেখেও ছিল রিয়াল সভাপতি। তার পরিকল্পনা ছিল মেসিকে কিনে এনে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে জুটি গড়ার। কিন্তু রিয়ালের সেই প্রস্তাবে প্রভাবিত হননি মেসি। ফিরিয়ে দেন সবিনয়ে। মেসি নাকি সরাসরিই বলে দেন, ‘আমি রিয়াল মাদ্রিদে যাব না। আমার পেছনে ঘুরে আপনা অযথা সময় নষ্ট করবেন না।’

শুধু রিয়াল নয়, গত মৌসুমগুলোতে বিশ্বের আরও অনেক ক্লাবই তলে তলে মেসিকে কেনার আগ্রহে দেখিয়েছে। তাদের মধ্যে আছে ইতালিয়ান ক্লাব ইন্টার মিলান, ইংলিশ ক্লাব চেলসি, ম্যানচেস্টার সিটি এবং ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)। কিন্তু কোনো ক্লাবই এখনো পর্যন্ত মেসিকে ন্যু-ক্যাম্প থেকে বের করতে সক্ষম হয়নি।

এবার অবশ্য মেসি নিজেই বার্সেলোনা ছাড়তে মরিয়া ছিলেন। কিন্তু আর্জেন্টাইন তারকা শেষ পর্যন্ত যেতে পারেননি। চুক্তির শর্তের দোহাই দিয়ে বার্সেলোনা তাকে ধরে রেখেছে। অনিচ্ছা সত্ত্বেও মেসি থেকে গেছেন বটে, তবে বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেননি। যার অর্থ, আগামী মৌসুমেই হয়তো বার্সেলোনা ছেড়ে মেসি পাড়ি জমাবেন অন্য কোথাও।

তা মেসির ভবিষ্যত সেই ঠিকানা হতে পারে কোনটি? মানচেস্টার সিটিসহ বেশ কয়েকটি ক্লাবই মেসিকে কেনার দৌড়ে আছে। তবে মেসির নতুন ঠিকানা যেটিই হোক, সেটি রিয়াল না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। মারজিও’র তার প্রতিবেদনে স্পষ্ট করেই উল্লেখ্য করেছেন, ২০১৩ সালেও মেসিকে হ্যাঁ বলাতে পারেনি রিয়াল। ভবিষ্যতেও পারবে না। কারণ, মেসি নিজেই রিয়ালে যেতে রাজি নয়!

কেআর

 

আরও পড়ুন

আরও