মেসির জন্য ৯০০ মিলিয়ন ইউরো জমাবে স্টুটগার্ট!
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৫ আশ্বিন ১৪২৭

মেসির জন্য ৯০০ মিলিয়ন ইউরো জমাবে স্টুটগার্ট!

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৪৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ০১, ২০২০

মেসির জন্য ৯০০ মিলিয়ন ইউরো জমাবে স্টুটগার্ট!
ভিএফবি স্টুটগার্টের সমর্থকদের সাহসের প্রশংসা করতেই হবে! ভাঙা ঘরে শুয়ে ‘সখের বশে হাতি কেনার’ স্বপ্ন যারা দেখতে পারে, তাদের আকাঙ্খার তারিফ না করে উপায় কি!

রিয়াল মাদ্রিদ, বায়ার্ন মিউনিখ, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মতো ধনী ক্লাবগুলো ৭০০ মিলিয়ন ইউরোর রিলিজ ক্লজের লিওনেল মেসিকে কেনার জন্য প্রতিযোগিতায় নামার সাহসই দেখায়নি। চড়া দামের কথা ভেবে নব্য ধনী পিএসজিও মেসিকে কেনার আগ্রহ বিসর্জন দিয়েছে! ম্যানচেস্টার সিটি, ইন্টার মিলান, জুভেন্টাসের মতো ক্লাবগুলো মেসিকে দলভুক্ত করার স্বপ্ন দেখে যাচ্ছে বটে। তবে নিজেদের সামর্থের সর্বোচ্চটুকু ঢেলে দিয়ে তাদের কেউ আদৌ মেসিকে বার্সেলোনা থেকে বের করতে পারবে কিনা, তা নিয়ে যথেষ্টই সংশয় আছে। সেখানে হতদরিদ্র ভিএফবি স্টুটগার্ট কিনা স্বপ্ন সাজিয়েছে রিলিজ ক্লজের পুরো ৭০০ মিলিয়ন ইউরো দিয়েই মেসিকে কেনার!

ঘটনা সত্যিই। ভিএফবি স্টুটগার্ট জার্মান বুন্দেসলিগায় কোনো রকমে অবনমন এড়িয়েছে। মাঠের পারফরম্যান্সের তুলনায় অর্থনৈতিক সামর্থে ক্লাবটি আরও বেশি গরীব। পুরো স্কোয়াড গঠনের পেছনেই তারা কখনো ১০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করে না। সেই দরিদ্র স্টুটগার্ট কিনা মাঠে নেমেছে মেসি নামের হাতি কেনার জন্য।

না, স্টুটগার্ট এখনই মেসির পেছনে ছুটছে না। মেসিকে কেনার জন্য সবে মাত্র তহবিল গঠনের চেষ্টাই নেমেছে আর কি! তবে ৭০০ মিলিয়ন ইউরোর রিলিজ ক্লজের মেসিকে কিনতে স্টুটগার্ট সংগ্রহ কতে চায় ৯০০ মিলিয়ন ইউরো! শুধু তো রিলিজ ক্লজের মূল্য পরিশোধ করলেই হবে না, আনুসংঘিক আরও নানা রকম খরচাপাতির ব্যাপার আছে না? সেসব খরচের কথা মাথায় রেখে এরই মধ্যে মেসিকে কেনার স্বপ্ন নিয়ে ৯০০ মিলিয়ন ইউরো জোগাড় করার যুদ্ধে নেমে পড়েছে স্টুটগার্ট।

তবে অসম্ভব এই স্বপ্নের পিছু নেওয়ার কৃতিত্ব স্টুটগার্টের ক্লাব কর্তাদের নয়। পুরো কৃতিত্ব ক্লাবটির সমর্থক গোষ্ঠির। স্কোয়াড গঠনে ১০০ মিলিয়ন ইউরো খরচ করার মুরোদ যাদের নেই, সেই ক্লাবের কর্তাদের ৯০০ মিলিয়ন খরচ করে একজন খেলোয়াড় কেনার সাহস থাকার কথা নয়। অসম্ভব স্বপ্নটা সাজিয়েছে জার্মান ক্লাবটির সমর্থকেরা। নিজেদের কুড়ে ঘরে বিশ্বসেরা মেসিকে আনবে, এই স্বপ্ন নিয়ে স্টুটগার্টের সমর্থকেরা এরই মধ্যে তহবিল সংগ্রহের কাজে নেমেও পড়েছে। ‘গো ফান্ড মি’ নামে অনলাইনে তহবিল সংগ্রহের ওয়েবসাইট খুলে তারা টাকা জমানোর কাজে লেগে পড়েছে। বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা স্টুটগার্টের সমর্থকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে এক স্ট্যাটাস দিয়েছে, ‘আমরা ভিএফবি সমর্থকেরা লিওনেল মেসির দলবদলের জন্য অর্থ জোগাড় করছি।’

কিন্তু অর্থ জোগাড় করতে পারলেই মেসিকে কিনতে পারবে স্টুটগার্ট? স্টুটগার্টের সমর্থকেরাও জানে, অর্থ সংগ্রহ করার পরও তাদের প্রচেষ্টা বিফলে যেতে পারে। তাহলে? তারা তাই আগে থেকেই বিকল্প পথ বের করে রেখেছে। মেসিকে যদি কিনতে না পারে, সেক্ষেত্রে সংগ্রহিত পুরো টাকাই তারা দান করে দেবে সেবামূলক দাতব্য প্রতিষ্ঠানে। স্ট্যাটাসে সেই বিষয়টিও আগে থেকেই পরিষ্কার করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ‘যদি মেসিকে কেনার জন্য পর্যাপ্ত অর্থ জোগাড় না হয়, বা মেসি যদি কোনো ক্লাবে চলে যায়, তাহলে সংগ্রহিত পুরো অর্থ ‘ভিভা কন আগুয়া’য় দান করে দেওয়া হবে।’
ভিভা কন আগুয়া হচ্ছে জার্মানি ভিত্তিক একটা অলাভজনক দাতব্য প্রতিষ্ঠান। যারা সারা বিশ্বের সবার জন্য বিশুদ্ধ পানি নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছে।

প্রশ্ন আসতে পারে, তা মেসিকে কেনার আশায় স্টুটগার্ট সমর্থকেরা এখন পর্যন্ত কত টাকা সংগ্রহ করতে পেরেছে? গণমাধ্যম সূত্রে পাওয়া সর্বশেষ খবর, এরই মধ্যে তারা ৪৮৯ ইউরো সংগ্রহ করে ফেলেছে! এভাবে তারা কত দিনে মেসিকে কেনার জন্য ৯০০ মিলিয়ন ইউরো জোগাড় করতে পারবে, সেই হিসাবের ভার আপনার নিজের কাঁধেই তুলে নিন!

কেআর

 

: আরও পড়ুন

আরও