গার্ড অব অনার পেয়ে যুদ্ধে কাত রিয়াল!
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ৯ আগস্ট ২০২০ | ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭

গার্ড অব অনার পেয়ে যুদ্ধে কাত রিয়াল!

পরিবর্তন ডেস্ক ২:৪৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২০, ২০২০

গার্ড অব অনার পেয়ে যুদ্ধে কাত রিয়াল!
ম্যাচ শুরুর আগে ‘গার্ড অব অনার’ দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে কৌতুহল ছিল তুঙ্গে। এক ম্যাচ হাতে রেখেই লা লিগার শিরোপা জিতে নিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। লেগানেসের মাঠে ‘গার্ড অব অনার’ তাই প্রাপ্যই ছিল রিয়ালের। তা লেগানেস যথাযথভাবেই প্রাপ্য সম্মানটুকু দিয়েছে নতুন চ্যাম্পিয়নদের। ম্যাচ শুরুর আগে লেগানেসের খেলোয়াড়েরা সারি বেঁধে দাঁড়িয়ে করতালির মাধ্যমে স্বাগত জানিয়েছে চ্যাম্পিয়ন রিয়ালকে।

কিন্তু ম্যাচ শুরুর আগে কুর্নিশ জানালেও মাঠের যুদ্ধে নতুন রাজাদের এতটুকু সমীহ করেনি পুঁচকে লেগানেস। বরং চোখে চোখ রেখে লড়াই করেছে সমানতালে। দুদুবার এগিয়ে গিয়েও তাই মাঠের যুদ্ধ জিততে পারেনি চ্যাম্পিয়ন রিয়াল। টানা ১০ জয়ের পর শেষ ম্যাচে হোচট খেতে হয়েছে তাদের। রাজা রিয়ালকে ২-২ গোলে রুখে দিয়েছে পুঁচকে লেগানেস।

মর্যাদার এই ড্রয়ের পরও লেগানেসের আসল দুঃখ কমেনি। কাল শেষ ম্যাচে ড্রয়ের পরও লেগানেস রেলিগেশন খড়্গে কাটা পড়েছে। অবনমিত হয়ে প্রথম বিভাগ থেকে নেমে যেতে হয়েছে দ্বিতীয় বিভাগে। মানে আগামী মৌসুমে ছোট্ট লেগানেসকে খেলতে হবে দ্বিতীয় বিভাগে।

অবনমন এড়ানো নিয়ে লেগানেসের লড়াইটা ছিল সেল্টা ভিগোর সঙ্গে। সেই সেল্টা ভিগোও কাল শেষ ম্যাচে এসপানিওলের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছে। ফলে মৌসুম শেষে দুই দলেরই পয়েন্ট সমান ৩৬ করে। তবে মুখোমুখি সাক্ষাতে জয়ী হওয়ায় অবনমন এড়িয়েছে সেল্টা ভিগো। ফলে দৈত্য রিয়ালের সঙ্গে ড্র করেও কপাল পুড়েছে লেগানেসের। তবে টানা ১০ ম্যাচ জেতা দৈত্য রিয়ালকে রুখে দিয়ে লিগ শেষ করাটাই বা লেগানেসের জন্য কম কি!

রেলিগেশন এড়াতে লেগানেসের দরকার ছিল জয়। চ্যাম্পিয়ন রিয়ালকে গার্ড অব অনার দিলেও লেগানেসের খেলোয়াড়েরা তাই মনে মনে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলেন মাঠে বিস্ময়কর কিছু ঘটানোর। কিন্তু নিজেদের মাঠে লেগানেসের শুরুটা তাদের প্রত্যাশামতো হয়নি। বরং ম্যাচের ৯ মিনিটেই পিছিয়ে পড়ে লেগানেস।

দারুণ এক গোল করে রিয়ালকে এগিয়ে দেন অধিনায়ক সার্জিও রামোস। যে গোলটির মাধ্যমে রিয়াল অধিনায়ক গড়েছেন একুশ শতকে লা লিগার প্রথম ডিফেন্ডার হিসেবে মৌসুমে সর্বোচ্চ গোল করার রেকর্ড। কালকের গোলটি ছিল মৌসুমে তার ১১তম লিগ গোল। একজন খাঁটি ডিফেন্ডার হয়েও মৌসুমে ১১ গোল, ভাবা যায়!

নেশার নেশায়বুদ লেগানেস প্রথমার্ধেই রামোসের এই গোলটি শুধিয়ে দেয়। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে লেগানেসকে সমতায় ফেরান ব্রায়ান গিল। ৫২ মিনিটেই আবার এগিয়ে যায় রিয়াল। এবার দলকে এগিয়ে দেন মার্কো অ্যাসেনসিও। কিন্তু ৭৮ মিনিটে আবার লেগানেসকে সমতায় ফেরান আশালে। ২-২ সমতার পর লেগানেস মরিয়া হয়েই চেষ্টা করেছে আরেকটি গোল করার। আরেকটি গোল পেলে জয়ের পাশাপাশি প্রথম বিভাগেও টিকে থাকতে পারত তারা। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি।

কেআর

 

: আরও পড়ুন

আরও