করোনার কাছে হারই মানলেন রিয়ালের সাবেক সভাপতি
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ১২ জুলাই ২০২০ | ২৮ আষাঢ় ১৪২৭

করোনার কাছে হারই মানলেন রিয়ালের সাবেক সভাপতি

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৩২ অপরাহ্ণ, মার্চ ২২, ২০২০

করোনার কাছে হারই মানলেন রিয়ালের সাবেক সভাপতি
করোনা ভাইরাসের কাছে শেষ পর্যন্ত হারই মানলেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক সভাপতি লরেঞ্জো সাঞ্জ। কয়েকটা দিন হাসপাতালের নিবিঢ় পরিচর্চা কেন্দ্রে করোনার সঙ্গে লড়াইয়ের পর গতকাল মৃত্যুর কোলে শায়িত হয়েছেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

কদিন আগেই করোনায় আক্রান্ত হন স্পেনের এই ধনাঢ্য ব্যবসায়ী। করোনা ভাইরাসের পরীক্ষায় ইতিবাচক প্রমাণ হওয়ার পর থেকেই হাসপাতালের নিবিঢ় পরিচর্চা কেন্দ্রে রাখা হয়েছিল তাকে। ক্রমেই তার অবস্থা খারাপের দিকে যাচ্ছিল। ফলে গত কদিন ধরেই তাকে নিয়ে শঙ্কায় ছিলেন সবাই। রিয়াল মাদ্রিদের সমর্থকেরা তার জন্য প্রার্থনায় বসেছিল। কিন্তু লরেঞ্জো সাঞ্জকে বাঁচানো যায়নি। সবাইকে কাঁদিয়ে ঠিকই পরপাড়ে পাড়ি জমালেন।

তার মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন তার ছেলে ফার্নান্দো সাঞ্জ। নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে ফার্নান্দো সাঞ্জ বাবার মৃত্যুর সংবাদটি দিয়েছেন এভাবে, ‘আমার বাবা মারা গেছেন। তার এভাবে চলে যাওয়ার কথা ছিল না। আমার দেখা অন্যতম দয়ালু, সাহসী ও কঠোর পরিশ্রমী মানুষটি চলে গেলেন। পরিবার ও রিয়াল মাদ্রিদ ছিল তার ভালোবাসা।’

ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদও এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘রিয়াল মাদ্রিদ ও বোর্ড পরিচালকরা অত্যন্ত দুঃখ ও শোকের সঙ্গে জানাচ্ছে, লরেঞ্জো সাঞ্জ মারা গেছেন। তিনি ১৯৯৫ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে এই ক্লাবটির সভাপতির গুরু দায়িত্ব পালন করেছেন। আমরা শোকাহত এমন এক সভাপতির জন্য, যিনি জীবনের বড় একটা অংশ ক্লাব রিয়ালেল জন্য নিংড়ে দিয়েছেন। রিয়াল যত দ্রুত সম্ভব তাকে যথাযথ মর্যাদা দেওয়ার চেষ্টা করবে।’

বিশ্বখ্যাত ফুটবল ক্লাব রিয়ালের সঙ্গে ব্যবসায়ী লরেঞ্জো সাঞ্জের সম্পর্কের শুরু সেই ১৯৮৫ সাল থেকে। ১৯৮৫ থেকে ১৯৯৫, টানা ১০ বছর রিয়ালের অন্যতম পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন তিনি। এরপর ১৯৯৫ সালে সভাপতি নির্বাচিত হন। সভাপতির দায়িত্ব নিয়ে অর্থনৈতিকভাবে শোচনীয় রিয়ালকে শক্তিশালী করার চেষ্টা করেন। দলের শক্তি বৃদ্ধি করতে নিজের টাকা খরচ করে কিনে আনেন একের পর এক তারকা খেলোয়াড়।

এমন ক্লাব অন্তপ্রাণ এক সভাপতির মৃত্যুতে রিয়ালে শোকের ছায়া তো নামবেই।

কেআর

 

: আরও পড়ুন

আরও