মেসির গোল্ডেন শু কেড়ে নিচ্ছে করোনা?
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০ | ২৬ আষাঢ় ১৪২৭

মেসির গোল্ডেন শু কেড়ে নিচ্ছে করোনা?

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:৪৮ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০২০

মেসির গোল্ডেন শু কেড়ে নিচ্ছে করোনা?
করোনা ভাইরাসের প্রয়ঙ্কারি ঝড়ে বিশ্ব ফুটবলাঙ্গন স্থবির হয়ে পড়েছে। সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইউরোপের বড় বড় লিগগুলো। এই বন্ধ দুয়ার খুলে লিগগুলো আবার মাঠে গড়াবে কিনা বলবে সময়। আবার শুরু হয়ে মৌসুম শেষ করতে পারলে তো হলোই। কিন্তু যদি লিগগুলো আর মাঠে না গড়ায়?

তাহলে সবচেয়ে বড় ক্ষতিটা হবে লিওনেল মেসির! বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকাকে হারাতে হবে নিজের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলা ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুট। সত্যিই তাই। বর্তমান অবস্থায় মৌসুম শেষ হয়ে গেলে ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটটা হাতছাড়া হবে মেসির। বর্তমানে তিনি যে গোল্ডেন বুটের দৌড়ে সেরা পাঁচেও নেই!

বিশ্ব ফুটবলের আর সব ব্যক্তিগত পুরস্কারের মতো ইউরোপিয়ান গোল্ডেন শু’টাও নিজেদের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছেন লিওনেল মেসি ও ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। বিশেষ করে মেসি। গত ১০ বছরের মধ্যে ৬ বছরই ব্যক্তিগত এই পুরস্কারটা জিতেছেন মেসি। বাকি ৪ বছরের মধ্যে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো জিতেছেন ৩ বার। লুইস সুয়ারেজ দুবার।

কি হিসাবটা একটু গড়মিল হয়ে গেল? আসলে ২০১৩-১৪ মৌসুমে পুরস্কারটা রোনালদো ও সুয়ারেজ যৌথভাবে জিতেছিলেন।

যাই হোক, ১০ বছরে ৬ বছরই ইউরোপের সর্বোচ্চ গোলদাতার এই পুরস্কার পেয়েছেন মেসি। জিতেছেন সর্বশেষ তিন বছরই। এই পরিসংখ্যান গোল্ডেন বুটটাকে মেসির সম্পত্তি হিসেবেই দাবি করে। কিন্তু এ মৌসুমে গোল্ডেন বুটের দৌড়ে তিনি সেভাবে নেই বললেই চলে।

চোটের কারণে মৌসুমের শুরুর দিকে অনেকটা সময় মাঠের বাইরে কাটাতে হয়েছে মেসিকে। তাছাড়া অন্য বছরগুলোর মতো এবার গোলের ফোয়ারাও ফোটাতে পারছেন না। যার ফল, বর্তমানে তিনি সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় সেরা পাঁচেও নেই।

ইউরোপের বিভিন্ন দেশের লিগগুলোর মধ্য থেকে সর্বোচ্চ গোলদাতাকে দেওয়া হয় এই পুরস্কার। একটু ভুলই হলো। আসলে পুরস্কারটা দেওয়া হয় ইউরোপের লিগগুলোর সর্বোচ্চ গোল-পয়েন্ট অর্জনকারীকে, সর্বোচ্চ গোলদাতাকে নয়!

ইউরোপের শীর্ষ ৫টি লিগের (ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্পেনের লা লিগা, ইতালিয়ান সিরি আ, জার্মান বুন্দেসলিগা ও ফেঞ্চ লিগ ওয়ান) প্রতিটি গোলের জন্য বরাদ্দ ২ পয়েন্ট। মাঝারি মানের লিগগুলোর প্রতি গোলের জন্য বরাদ্দ ১.৫ পয়েন্ট এবং কম প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ লিগগুলোর প্রতি গোলের জন্য বরাদ্দ ১ পয়েন্ট। এভাবে পয়েন্ট হিসেব করে সর্বোচ্চ পয়েন্ট অর্জনকারীই পেয়ে থাকেন এই পুরস্কার।

সব মিলে দেখা যায়, ইউরোপের শীর্ষ ৫টি লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতাই মূলত এই পুরস্কার পেয়ে থাকেন। সেই হিসেবে এবার এই পুরস্কারের দৌড়ে বর্তমানে সবচেয়ে এগিয়ে লাৎসিও’র ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড সিরো ইমোবাইল। ইতালিয়ান সিরি আ’তে তিনি এরই মধ্যে করে ফেলেছেন ২৬ ম্যাচে ২৭ গোল। তার অর্জন সর্বোচ্চ ৫৪ পয়েন্ট। মানে বর্তমান অবস্থায় মৌসুম শেষ হলে মেসির দখলে থাকা গোল্ডেন বুটটা এবার পাবেন লাৎসিওর ইতালিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

গোল ও পয়েন্টে তার পরই আছেন বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ ফরোয়ার্ড রবার্ট লেভান্ডভস্কি। বায়ার্নের হয়ে তিনি জার্মান বুন্দেসলিগায় এ পর্যন্ত করেছেন ২৩ ম্যাচে ২৫ গোল। এই দুজনের পরই আছেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও জার্মান ক্লাব লাইপজিগের ফরোয়ার্ড টিমো ভেরনার। নিজ নিজ দলের হয়ে দুজনেই করেছেন সমান ২১টি করে গোল।

আর মেসি? ক্লাব বার্সেলোনার হয়ে লা লিগায় তিনি এ পর্যন্ত করেছেন ১৯ গোল। এই পরিসংখ্যান স্পষ্ট করেই বলছে, খেলা আবার মাঠে গড়ালেও মেসির পক্ষে এবার গোল্ডেন বুটটা ধরে রাখার সম্ভাবনা ক্ষীণ। আর বর্তমান অবস্থায় শেষ হলে কোনো সম্ভাবনাই তার থাকবে না। তার কাছ থেকে গোল্ডেন বুটটা ছিনিয়ে নেবেন সিরো ইমোবাইল।

কেআর

 

: আরও পড়ুন

আরও