রোনালদোর হ্যাটট্রিক, মেসিকে ছুঁলেন এবং পেছনে ফেললেন
Back to Top

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ | ২৪ চৈত্র ১৪২৬

রোনালদোর হ্যাটট্রিক, মেসিকে ছুঁলেন এবং পেছনে ফেললেন

পরিবর্তন ডেস্ক ১০:০০ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ০৭, ২০২০

রোনালদোর হ্যাটট্রিক, মেসিকে ছুঁলেন এবং পেছনে ফেললেন

নতুন বছরের প্রথম ম্যাচ। প্রথম বার মাঠে নেমেই দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করলেন রোনালদো। তার দল জুভেন্টাসও ক্যালিয়ারির বিপক্ষে জিতেছে ৪-০ গোলে। হ্যাটট্রিক করে পর্তুগিজ তারকা শুধু দল জুভেন্টাসকে বড় জয়ই এনে দেননি, নিজেও ছুঁয়েছেন-গড়েছেন বেশি কয়েকটা রেকর্ড।

পাশাপাশি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসিকে একটা জায়গায় ছুঁয়েছেন। অন্য একটা রেকর্ডে মেসিকে পেছনে ফেলে দিয়েছেন দুই ধাপ। এই স্বপ্নময় শুরু দেখে ভক্তরা আশা করতেই পারেন, ২০২০ সালটি স্বপ্নের মতোই কাটবে রোনালদোর!

মৌসুমের শুরুটা খুব ভালো হয়নি। তবে অফফর্ম কাটিয়ে বর্তমানে অবিশ্বাস্য ফর্মে রয়েছেন পর্তুগিজ তারকা। কালকের হ্যাটট্রিক মিলিয়ে সর্বশেষ ৫ ম্যাচেই করলেন ৮ গোল। সব মিলে লিগে এ মৌসুমে তার গোল সংখ্যা এখন ১৩। মানে ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুটের দৌড়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মেসিকে ধরে ফেললেন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ গোল-মেশিন। লিগে মেসিও এ পর্যন্ত করেছেন ১৩টি গোল।

অন্য একটা রেকর্ডে তো মেসিকে দুই ধাপ পেছনেই ফেলে দিলেন রোনালদো। সেটা হ্যাটট্রিক রেকর্ডে। ক্যালিয়ারির বিপক্ষে হ্যাটট্রিকটা সব মিলে লিগে রোনালদোর ৩৬তম হ্যাটট্রিক। এই ৩৬টি হ্যাটট্রিক তিনি করেছেন ভিন্ন ৩টি লিগের ভিন্ন ৩টি ক্লাবের হয়ে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ২টি, রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ৩৩টি এবং ইতালিয়ান সিরি আ’র হয়ে ১টি। অন্য দিকে মেসি এক বার্সেলোনাতেই কাটিয়ে দিচ্ছেন পুরো ক্যারিয়ার। কাতালন ক্লাবটির হয়ে আর্জেন্টাইন তারকা লিগে হ্যাটট্রিক করেছেন মোট ৩৪টি।

ক্লাব ও জাতীয় দল মিলিয়ে এটা রোনালদোর ক্যারিয়ারের ৫৬তম হ্যাটট্রিক। ক্লাব জুভেন্টাসের হয়ে দ্বিতীয়্‌। তবে ইতালিয়ান সিরি আ’তে এটাই রোনালদোর প্রথম হ্যাটট্রিক। এর আগে জুভেন্টাসের হয়ে হ্যাটট্রিকটা করেছিলেন উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে। কালকের হ্যাটট্রিকটির মধ্যদিয়ে আরও একটা রেকর্ড ছুঁয়েছেন রোনালদো। এই শতকে দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে গড়লেন ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্প্যানিশ লা লিগা ও ইতালিয়ান সিরি আ’তে হ্যাটট্রিক করার কীর্তি।

তিনি ছাড়া এই কীর্তি আছে আর মাত্র একজনের। তিনি চিলিয়ান ফরোয়ার্ড অ্যালেক্সিস সানচেজ। চিলিয়ান এই তারকাও ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগা এবং সিরি আ’তে হ্যাটট্রিক করেছেন। সানচেজ ইংলিশ লিগে হ্যাটট্রিক করেছেন আর্সেনালের হয়ে। ইতালিয়ান সিরি আ’তে উদিনিসের হয়ে এবং লা লিগায় বার্সেলোনার হয়ে।

কাল রাতে নিজেদের ঘরের মাঠ অ্যালিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে শুরুটা তেমন ভালো হয়নি জুভেন্টাসের। প্রথমার্ধে তাই গোলশূন্য থাকতে হয় ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নদের। কিন্তু বিরতি থেকে ফিরেই অন্য চেহারায় ধরা দেন রোনালদো। সমর্থকদের হতাশা দূর করে ৪৯ মিনিটে এগিয়ে দেন জুভেন্টাসকে। এরপর ৬৭ মিনিটে নিজের এবং দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন পর্তুগিজ তারকা। ৮১ মিনিটে ব্যবধান ৩-০ করেন আর্জেন্টাইন তারকা গঞ্জালো হিগুয়েইন।

হিগুয়েইনের এই গোল উৎসবের রেশ না কাটতেই আবারও গোল উৎসবে মাতে জুভেন্টাস। এবং যথারীতি উৎসবের মধ্যমণি রোনালদো। ৮২ মিনিটে দারুণ এক গোল করে পূর্ণ করেন হ্যাটট্রিক।

দারুণ এই জয়ে জুভেন্টাসও পয়েন্টে শীর্ষে থাকা ইন্টারমিলানকে ধরে ফেলেছে। ১৮ ম্যাচ শেষে ইন্টার এবং জুভেন্টাস দুই দলেরই পয়েন্ট এখন সমান ৪৫ করে। তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় ইন্টারমিলান। জুভেন্টাস দুয়ে।

কাল জুভেন্টাসের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে জিতেছে ইন্টারমিলানও। রোমেলু লুকাকুরি জোড়া গোলে ইন্টার ৩-১ গোলে হারিয়েছে নাপোলিকে। ইন্টারমিলানের জয়টা আবার অ্যাওয়ে ম্যাচে। দিনের অন্য ম্যাচে অন্য মিলান মানে এসি মিলান গোলশূন্য ড্র করেছে সাম্পদোরিয়ার সঙ্গে।

কেআর

 

খেলাধুলা: আরও পড়ুন

আরও