মুসলিমদের এবার ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দিল মাক্রোঁ
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০ | ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

মুসলিমদের এবার ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দিল মাক্রোঁ

পরিবর্তন ডেস্ক ১২:২৬ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২০, ২০২০

মুসলিমদের এবার ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দিল মাক্রোঁ
ফ্রান্সে ইসলাম সমর্থকদের প্রতিহত করার জন্য এবার নতুন একটি চার্টার প্রকাশ করলেন এমানুয়েল মাক্রোঁ।

চার্টার অফ রিপাবলিকান ভ্যালুস নামের ওই নির্দেশপত্র ১৫ দিনের মধ্যে গ্রহণ করতে হবে ফরাসি ইমামদের। এবং তা যাতে সকলে মেনে চলেন, তা নিশ্চিত করতে হবে।

গত বুধবারই প্যারিসের রাজপ্রাসাদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ফ্রেঞ্চ কাউন্সিল অফ দ্য মুসলিম ফেইথ (সিএফসিএম)-এর কয়েকজন বিশিষ্ট সদস্যকে নিয়ে বৈঠকে বসেছিলেন মাক্রোঁ। সেখানেই চার্টারের বিভিন্ন পয়েন্ট নিয়ে তাদের মধ্যে আলোচনা হয়। তারপরেই চার্টারটি প্রকাশ করে মাক্রোঁর সরকার।

বলা হয়েছে, মুসলিম নেতা এবং ইমামদের ১৫ দিনের মধ্যে ওই চার্টার গ্রহণ করতে হবে। খবর ডয়চে ভেলের

চার্টার অনুযায়ী, প্রত্যেক ইমামকে এখন থেকে একটি সংশাপত্র বা অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড দেওয়া হবে। যাদের কাছে ওই কার্ড থাকবে, তারাই একমাত্র ইমাম হিসেবে কাজ করতে পারবেন। যেকোনো সময় ওই কার্ড কেড়ে নেওয়ার অধিকার থাকবে রাষ্ট্রের।

মাক্রোঁ সরকারের বক্তব্য, চরমপন্থী ইসলাম প্রতিহত করার জন্যই এই ব্যবস্থাগুলো করা হচ্ছে।

চার্টারে স্পষ্ট করে বলা আছে, ইসলাম একটি ধর্ম, কিন্তু তা যেন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত না হয়। কেউ যদি তা করার চেষ্টা করেন, তা হলে রাষ্ট্র তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।

আরো একটি কথা উল্লেখ করা হয়েছে চার্টারে- বিদেশের প্রভাব থেকে মুক্ত থাকতে হবে ইসলামিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে।

বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, আরব বিশ্ব থেকে ইসলামিক প্রতিষ্ঠানগুলো যে সাহায্য পায়, তার ওপর কড়াকড়ি জারি করার জন্যই চার্টারে এই পয়েন্টটি লেখা হয়েছে।

ফরাসি সংবাদ সংস্থাকে সরকারের একটি সূত্র জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে সিএফসিএম চার্টার মেনে নেওয়ার কথা জানিয়েছে। তবে মাক্রোঁ জানিয়ে দিয়েছেন, ১৫ দিনের মধ্যে মুসলিম সমাজকে তা গ্রহণ করতে হবে।

সম্প্রতি ফ্রান্সের এক স্কুলশিক্ষককে হত্যা করা হয়। স্কুলে তিনি বাকস্বাধীনতার কথা বোঝাতে গিয়ে মহানবীর (সা.) বিতর্কিত কার্টুন দেখিয়ে ছিলেন বলে অভিযোগ। এরপর মাক্রোঁ চরমপন্থী মুসলিমদের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নেন। স্পষ্ট জানিয়ে দেন, ফ্রান্সে বাকস্বাধীনতা রয়েছে। এবং তাতে কোনোভাবেই তিনি কাউকে হস্তক্ষেপ করতে দেবেন না। চরমপন্থী ইসলামের বিরুদ্ধে অত্যন্ত কড়া অবস্থান গ্রহণ করেন তিনি। যার জন্য মুসলিম বিশ্বে তাকে সমালোচনার মুখোমুখিও হতে হয়।

এবার নতুন এই চার্টার নিয়েও যথেষ্ট বিতর্কের সম্ভাবনা আছে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন।

এইচআর

 

আরও পড়ুন

আরও