ঢাকায় মুক্তি পাচ্ছে ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’
Back to Top

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২ | ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

>

ঢাকায় মুক্তি পাচ্ছে ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’

পরিবর্তন ডেস্ক ২:১৩ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০২১

ঢাকায় মুক্তি পাচ্ছে ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’
প্রায় দুই দশক পর পর্দায় আসছে হলিউডের জনপ্রিয় ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিরিজের নতুন ছবি। ১৯৯৯ সালে মুক্তি পায় বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনিনির্ভর সিনেমা ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’। মুক্তির পরপরই সিনেমাটি ব্যাপক সাড়া পায়। সেই সময়ে এই সিনেমাটি বক্স অফিস থেকে ৪৬৫.৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেছিল। এরপর ২০০৩ সালে মুক্তি পায় এই সিরিজের পরের দুটি সিনেমা ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রিলোডেড’ এবং ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেভল্যুশনস’। এই দুটি সিনেমা বক্স অফিস থেকে যথাক্রমে ৭৩৯.৪ মিলিয়ন ও ৪২৭.৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করার মাধ্যমে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে।

‘ম্যাট্রিক্স রেভল্যুশনস’কে সিরিজটির শেষ বলে ধারণা করেছিলেন ভক্তরা। তবে ভক্তদের চমকে দিয়ে আবারও পর্দায় আসছে ‘ম্যাট্রিক্স’। আগামী ২২ ডিসেম্বর আন্তর্জাতিকভাবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিরিজের চতুর্থ সিনেমা ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’। বাংলাদেশের দর্শকরাও ছবিটি দেখতে পাবেন বড় পর্দায়। ২৪ ডিসেম্বর স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে বহুল কাঙ্ক্ষিত এ ছবি। 

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের স্যান ফ্রান্সিসকোতে ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’ সিনেমার শুটিং শুরু হয়। স্যান ফ্রান্সিসকো ছাড়া জার্মানি ও যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে সিনেমাটির শুটিং করা হয়েছে। তবে করোনা মহামারির কারণে ২০২০ সালের মার্চ মাসের পর সিনেমাটির শুটিং স্থগিত করা হয়। তারপর একই বছরের আগস্টে জার্মানির বার্লিনে সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’-এর চতুর্থ পর্বে কিয়ানু রিভস, ক্যারি অ্যান মস ছাড়াও থাকছেন নিল প্যাট্রিক হ্যারিস, জেসিকা হেনউকসহ একঝাঁক জনপ্রিয় হলিউড তারকা এবং বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। ট্রেলারে বড় চশমা পরা বলিউডের প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকেও দেখা যায়। 

তখন থেকে ট্রেলারে প্রিয়াঙ্কাকে দেখে যেমন মুগ্ধ হন তার ভক্তরা, তেমনি ছবিতে তার ভূমিকা নিয়ে কৌতূহলও জাগিয়েছে। আগের তিন পর্বের মতো এবারও পরিচালনায় থাকছেন লানা ওকাভস্কি, আর নিও এবং ট্রিনিটি চরিত্রে থাকছেন জনপ্রিয় অভিনেতা কিয়ানু রিভস ও অভিনেত্রী ক্যারি অ্যান মস। ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমার কাহিনি যেখান থেকে শুরু হয়েছিল, এই সিনেমার কাহিনি ঠিক সেখানেই ফিরে যাবে। অর্থাৎ ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’ সিনেমায় ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমার কাহিনির পুনরুত্থান ঘটবে।

‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেভল্যুশনস’ সিনেমায় নিও ও ট্রিনিটি মারা যায়। তাই এবারের সিনেমায় এই দুটি চরিত্রকে কিভাবে উপস্থাপন করা হবে, এ বিষয়ে দর্শকদের জল্পনা-কল্পনার শেষ ছিল না। তবে সিনেমার ট্রেলার দেখে এখন অনেকেই বুঝতে পেরেছেন কিভাবে এই দুটি চরিত্রকে ফিরিয়ে আনা হবে। এবারের ছবিতে দেখা যাবে, নিও ও ট্রিনিটি নিজেদের অস্তিত্ব ভুলে গেছে। একে অন্যকে চিনতে পারছে না তারা। নিও এবং ট্রিনিটি আবার ফিরে এসেছে। কিভাবে তারা ফিরেছে সেই রহস্যের ইঙ্গিত লুকিয়ে আছে ছবির নামে। 

ছবির ট্রেলার দেখে বোঝা যায়, নিও পুনরায় তার থমাস অ্যান্ডারসন সত্তায় ফিরে যায় এবং সে ম্যাট্রিক্স সম্পর্কে সব ভুলে যায়। এমনকি সে ট্রিনিটিকেও চিনতে পারে না এবং ট্রিনিটিও তাকে চিনতে পারে না। এ ছাড়া থমাস অ্যান্ডারসন তার স্বপ্নে অদ্ভুত সব জিনিস দেখা শুরু করে। এই স্বপ্নগুলো নিয়ে তার মনে নানা রকমের প্রশ্ন জাগে, তাই সে এসব স্বপ্নের রহস্য উন্মোচন করার চেষ্টা শুরু করে। এই সিনেমায় কিছুটা ভিন্নভাবে তার সঙ্গে মরফিয়াসের দেখা হবে। মরফিয়াস আবারও থমাস অ্যান্ডারসনের সামনে নীল ও লাল রঙের দুটি ক্যাপসুল নিয়ে হাজির হয়। থমাস যদি নীল রঙের ক্যাপসুলটি খায়, তাহলে সে ম্যাট্রিক্সের মধ্যে আটকা পড়ে থাকবে এবং বাস্তব পৃথিবী সম্পর্কে তার কখনো জানা হবে না। আর সে যদি লাল রঙের ক্যাপসুলটি খায়, তাহলে সে বাস্তব পৃথিবী সম্পর্কে জানতে পারবে এবং তার জন্য জ্ঞানের দুয়ার খুলে যাবে।

‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমার মতো এখানেও থমাস অ্যান্ডারসন লাল ক্যাপসুলটি বেছে নিয়ে বাস্তব পৃথিবীর রহস্য উন্মোচনের কাজে নামবে। এ ছাড়া ‘দ্য ম্যাট্রিক্স’ সিনেমায় রূপক অর্থে যে জিনিসগুলো ব্যবহার করা হয়েছে, সেগুলো ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশনস’ সিনেমায়ও থাকছে।

ইসি
 

আরও পড়ুন

আরও
               
         
close