মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রীর স্ত্রীর দাফন সম্পন্ন
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৪ জুলাই ২০২০ | ২০ আষাঢ় ১৪২৭

মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রীর স্ত্রীর দাফন সম্পন্ন

গাজীপুর প্রতিনিধি ৩:৪২ অপরাহ্ণ, জুন ২৯, ২০২০

মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রীর স্ত্রীর দাফন সম্পন্ন
মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপির স্ত্রী লায়লা আরজুমান্দ বানুর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

আজ সোমবার জোহরের নামাজের পর গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এর আগে গোরস্থান সংলগ্ন বায়তুল মোয়াজ্জাম জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়।

তার নামাজে জানাযায় মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি, যুব ও ক্রিড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, ইকবাল হোসেন সবুজ এমপি, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, জিএমপি কমিশনার, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট আজমতউল্লাহ খাঁন প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন।

মরহুমের একমাত্র ছেলে এটিএম মাজহারুল হক তুষার নামাজে জাযাজায় ইমামতি করেন।

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯ ) আক্রান্ত হয়ে ১৩ জুন মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোহাম্মেল হক এমপি ও তার স্ত্রী লায়লা আরজুমান্দ বানু সিএমএইচে ভর্তি হন।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরে আসলেও লায়লা আরজুমান্দ বানুর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সিএমএইচে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সি এমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকাল পৌনে ৮টায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৪৯ সালের ৬ জানুয়ারি লায়লা আরজুমান্দ বানু গাজীপুরে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম শেখ মোবারক জান এবং মাতার নাম লাল বানু। ব্যক্তি জীবনে অত্যন্ত ধর্মপ্রাণ ছিলেন লায়লা আরজুমান্দ বানু।

তিনি ১৯৭৩ সালে মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। লায়লা আরজুমান বানু দুই কন্যা, এক পুত্র এবং ছয় জন নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

এসবি
আরও পড়ুন...
মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রীর স্ত্রীর করোনায় মৃত্যু

 

: আরও পড়ুন

আরও