স্ত্রীর ছুড়ে মারা গরম তেলে ঝলসে গেল স্বামী
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ২২ জানুয়ারি ২০২২ | ৮ মাঘ ১৪২৮

স্ত্রীর ছুড়ে মারা গরম তেলে ঝলসে গেল স্বামী

সাভার প্রতিনিধি ১১:৪২ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৯, ২০২১

স্ত্রীর ছুড়ে মারা গরম তেলে ঝলসে গেল স্বামী
ঢাকার সাভারে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর শরীরে গরম তেল ঢেলে দিয়েছেন স্ত্রী। এভাবে ৮ দিন তাকে বিনা চিকিৎসায় ঘরেই রাখেন স্ত্রী।

অবশেষে স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে তাকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। অভিযুক্ত স্ত্রীকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানা গেছে।

রোববার (২৮ নভেম্বর) সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের হেমায়েতপুরের নতুনপাড়া এলাকার মুক্তার আলীর বাড়ি থেকে স্বামী আমিনুল ইসলামকে উদ্ধার করা হয়। এর আগে গত ১৯ নভেম্বর রাতে স্বামী আমিনুলের শরীরে গরম তেল ছুড়ে দেয় স্ত্রী ফরিদা বেগম।

ঝলসে যাওয়া স্বামী আমিনুল ইসলাম (৩০) ফরিদপুর জেলার বালিয়াডাঙ্গী থানার রতনাই বাঘা গ্রামের মো. হাশেম আলীর ছেলে। তিনি সাভার ভরারী এলাকার ডাড পোশাক কারখানার অপারেটর হিসেবে কাজ করতেন। 

আটক ফরিদা বেগম ফরিদপুর জেলার পাংশা থানার হরিনাডাঙ্গী গ্রামের আকবর আলীর মেয়ে। তিনি হেমায়েতপুর এলাকার এজেআই পোশাক কারখানায় অপারেটর হিসেবে চাকরি করেন।

প্রতিবেশীদের বরাত দিয়ে সাভার মডেল থানার ট্যানারী পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুজন শিকদার জানিয়েছেন, ১৯ নভেম্বর স্ত্রী তার স্বামীর গায়ে রান্নার গরম তেল ঢেলে দেয়। ৮ দিন ঘরেই বিনা চিকিৎসায় পড়েছিলো আমিনুল। মাঝে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হলেও স্ত্রীর অগ্রাহ্য আচরণে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা হয়নি। পরে প্রতিবেশীরা বিষয়টি বুঝতে পেরে থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে আমিনুলকে উদ্ধার করে ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউট হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ।

তিনি আরও জানিয়েছেন, গরম তেলে আমিনুলের মাথা, ঘাড়, বুকের বিভিন্ন অংশ ঝলসে গেছে। খুব অমানবিক কাজ করেছে তার স্ত্রী। অভিযুক্ত স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের প্রক্রিয়া চলছে।

এসকে

 

আরও পড়ুন

আরও