মিরসরাইয়ে বাড়ছে লেবু চাষের আগ্রহ, এ বছর ৯০ হেক্টর জমিতে চাষ
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

>

মিরসরাইয়ে বাড়ছে লেবু চাষের আগ্রহ, এ বছর ৯০ হেক্টর জমিতে চাষ

মুহাম্মদ দিদারুল আলম, চট্টগ্রাম ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৫, ২০২২

মিরসরাইয়ে বাড়ছে লেবু চাষের আগ্রহ, এ বছর ৯০ হেক্টর জমিতে চাষ
চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে বাড়ছে লেবু চাষের আগ্রহ। পাহাড় ও সাগর বেষ্টিত মিরসরাই উপজেলার বিস্তীর্ণ পাহাড়ি এলাকায় বাণিজ্যিকভাবে লেবু চাষ করে এখন অনেকে হচ্ছেন স্বাবলম্বী। এছাড়া লেবু বাগানে শ্রমিকের কাজ করে সংসার চালাচ্ছেন কমপক্ষে সাড়ে ৩ হাজার লোক।
মিরসরাই উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ১৬ ইউনিয়ন ও ২ পৌরসভায় চলতি বছর ৯০ হেক্টর জমিতে লেবু চাষ করা হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় ৫ হেক্টর বেশি। এ বছর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৫শ মেট্রিক টন লেবু। তবে সবচেয়ে বেশি চাষ হয় করেরহাট ইউনিয়নে। ওই ইউনিয়নে পাহাড়ি-বাঙালি মিলে প্রায় ৩শ লেবুচাষি রয়েছেন।

উপজেলার পাহাড়বেষ্টিত ইউনিয়ন ১ নং করেরহাটকে স্থানীয়ভাবে বলা হয় ‘লেবুর দেশ’। ওই ইউনিয়নের কয়লাবাজার, লনখো, কালাপানিয়া, বদ্ধ ভবানী, ফরেস্ট অফিস, সাইবেনীখিল, কয়লাছরা পাড়, লক্ষীছরার পাড়ে বাণিজ্যিকভাবে লেবু চাষ হচ্ছে। বাঙালির পাশাপাশি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠিরাও লেবু চাষে ঝুঁকছে।

করেরহাট ইউনিয়নের সাইবেনীখিল এলাকার লেবুচাষি ঊষা ত্রিপুরা বলেন, আমি সাইবেনীখিল এলাকায় প্রায় আড়াই কানি জমিতে জমিতে লেবু চাষ করেছি। ফলন হয়েছে ভালো। এপ্রিল মাস পর্যন্ত প্রায় আড়াই লাখ টাকার লেবু বিক্রি করেছি। লেবু বিক্রির টাকায় তিন ছেলের পড়াশুনার খরচ চলছে। প্রতি বস্তা (১ হাজার পিস) লেবু বিক্রি হয়েছে সাড়ে ৩ হাজার টাকায়। তবে কৃষি অফিস থেকে কোন কর্মকর্তা কখনো আসেনি।
করেরহাট ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য জামাল উদ্দিন বলেন, আমি লেবু চাষ করে পাকা বাড়ি নির্মাণ করেছি। লেবু চাষ একটি লাভজনক ব্যবসা। ধীরে ধীরে এই অঞ্চলে লেবু চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে।
করেরহাট ইউনিয়নের কয়লামুখ ও সাইবেনীখিল এলাকায় দেখা গেছে, লেবু কিনতে পাইকাররা বিভিন্ন জেলা থেকে বস্তা নিয়ে সড়কের পাশের মাচাঙ্গ ঘরে অপেক্ষা করছে। লেবুচাষিরা প্লাস্টিক ও বেতের ঝুড়িতে করে বাগান থেকে লেবু তুলে বস্তাবন্দি করছে। পাইকাররা লেবু ট্রাকে করে চট্টগ্রাম, ফেনী, লাকসাম, কুমিল্লা, ঢাকার কারওয়ান বাজারসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যায়।


চট্টগ্রামের রিয়াজ উদ্দিন বাজার থেকে আসা পাইকার নুর আহমদ জানান, তিনি সপ্তাহে একদিন করেরহাটের পাহাড়ি এলাকার লেবুর চাষিদের কাছ থেকে লেবু কিনে চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করেন। আকার ভেদে প্রতি বস্তা লেবু ৩ থেকে ৪ হাজার টাকায় কিনে থাকেন।

এদিকে শুধু লেবু চাষ নয় মিরসরাইয়ে লেবু বাগানে কাজ করে প্রতিদিন সংসার চলে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার শ্রমিকের। এখানকার লেবু শ্রমিকরা প্রতিদিন ৫শ থেকে ৬শ টাকা মজুরিতে কাজ করে থাকে।

জানতে চাইলে মিরসরাই কৃষি কর্মকর্তা রঘুনাথ নাহা বলেন, মিরসরাইয়ে প্রায় ৯০ হেক্টর জমিতে লেবু চাষ হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় ৫ হেক্টর বেশি। চলতি বছর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৫শ মেট্রিক টন। চাষে খরচের চেয়ে লাভ বেশি হওয়ায় এতদঞ্চলে লেবু চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে।
 

আরও পড়ুন

আরও
               
         
close