উদ্ধার অভিযান সমাপ্তির পর মিললো আরেক লাশের সন্ধান
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭

উদ্ধার অভিযান সমাপ্তির পর মিললো আরেক লাশের সন্ধান

পরিবর্তন প্রতিবেদক ৭:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০

উদ্ধার অভিযান সমাপ্তির পর মিললো আরেক লাশের সন্ধান
বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চ ডুবির ঘটনায় উদ্ধার অভিযানের সমাপ্তি ঘোষণার আড়াই ঘণ্টা পর আরেকটি মৃতদেহ ভেসে উঠেছে। এ নিয়ে ওই দুর্ঘটনায় মোট ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা এরশাদ হোসাইন পরিবর্তন ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে একজন পুরুষের লাশ দুর্ঘটনাস্থলের কাছেই ভেসে উঠে। লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে, তবে এখনও তার পরিচয় শনাক্ত করা যায় নি। এ নিয়ে মোট ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হলো।

গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে লঞ্চটি ডুবে যাওয়ার পর সারা দিনের উদ্ধার অভিযানে ৩২ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছিল। মঙ্গলবার লঞ্চটি টেনে তোলার সময়ে আরেকজন কিশোরের লাশ পাওয়া যায়। এরপর দুপুর আড়াইটায় উদ্ধার অভিযানের সমাপ্তি টানে বিআইডব্লিউটিএ।

এ সময় বিআইডব্লিউটিএ'র যুগ্ম পরিচালক এ কে এম আরিফ উদ্দিন বলেছিলেন, 'ডুবে যাওয়া লঞ্চ এমএল মর্নিং বার্ডকে টেনে সদরঘাটের কুমিল্লা ডকইয়ার্ডের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ভেতরে আর কোনো মৃতদেহ পাওয়া যায়নি। আমরা অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করছি।

উল্লেখ্য, সোমবার সকালে এমএল মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি মুন্সিগঞ্জের কাঠপট্টি এলাকা থেকে সদরঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়। সদরঘাটের কাছেই ফরাশগঞ্জ ঘাট এলাকায় নদীতে ময়ূর-২ নামের অপর একটি বড় লঞ্চের ধাক্কায় 'মর্নিং বার্ড' লঞ্চটি ডুবে যায়।

ওই ঘটনায় নদী থেকে যে ৩৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, এরমধ্যে পরিচয় পাওয়া মৃত ৩০ জন হলেন- সত্যরঞ্জন বনিক (৬৫), মিজানুর রহমান (৩২), শহিদুল (৬১), সুফিয়া বেগম (৫০), মনিরুজ্জামান (৪২), সুবর্ণা আক্তার (২৮), মুক্তা (১২), গোলাম হোসেন ভুইয়া (৫০), আফজাল শেখ (৪৮), বিউটি (৩৮), ছানা (৩৫), আমির হোসেন (৫৫), মো. মহিম (১৭), শাহাদাৎ (৪৪), শামীম ব্যাপারী (৪৭), মিল্লাত (৩৫), আবু তাহের (৫৮), দিদার হোসেন (৪৫), হাফেজা খাতুন (৩৮), সুমন তালুকদার (৩৫), আয়শা বেগম (৩৫), হাসিনা রহমান (৪০), আলম বেপারী (৩৮), মোসা. মারুফা (২৮), শহিদুল হোসেন (৪০), তালহা (২), ইসমাইল শরীফ (৩৫), সাইফুল ইলাম (৪২), তামিম ও সুমনা আক্তার।

পিএসএস

 

: আরও পড়ুন

আরও