কারখানায় জেনারেটর বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ ২ ভাইয়ের মৃত্যু
Back to Top

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ মে ২০২২ | ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

>

কারখানায় জেনারেটর বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ ২ ভাইয়ের মৃত্যু

পরিবর্তন প্রতিবেদক ২:৩৪ অপরাহ্ণ, মে ১২, ২০২২

কারখানায় জেনারেটর বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ ২ ভাইয়ের মৃত্যু
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জেনারেটর বিস্ফোরণে ১০ ঘণ্টার ব্যবধানে দুই ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিওতে) তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- মো. শামীম মিয়া (৩০) ও মো. নাজমুল মিয়া (১৮)। বিস্ফোরণে দগ্ধ মো. বাশার (২৮) সেখানে চিকিৎসাধীন।

জানা গেছে, রোববার (৮ মে) সন্ধ্যা ৬টার দিকে আড়াইহাজারের ফ্রেশ স্টিল অ্যান্ড রি-রোলিং মিলে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে তিন শ্রমিক দগ্ধ হন। পরে তাদের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

নিহতের বোন মোছা. কারিমা আক্তার জানান, বুধবার (১১ মে) রাত সাড়ে ১১টার দিকে বার্ন ইনস্টিটিউটের আইসিইউতে নাজমুল মিয়ার মৃত্যু হয়। এরপর বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে মারা যান বড় ভাই শামীম মিয়া।

তিনি আরও জানান, তারা নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থানার চামুরকান্দি গ্রামের আব্দুল করিমের সন্তান।

নিহতদের সহকর্মী মো. শামীম জানন, কারখানায় কাজ করার সময় বিদ্যুতের লাইন স্পার্ক (আগুনের জলক) করে জেনারেটর বিস্ফোরিত হয়। এতে শামীম, নাজমুল ও বাসার দগ্ধ হন। পরে দগ্ধ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. আইউব হোসেন দুই ভাইয়ের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নাজমুল মিয়ার শরীরের ৬১ শতাংশ ও শামীম মিয়ার ৪৮ শতাংশ দগ্ধ ছিল। এছাড়া চিকিৎসাধীন শামীমের শরীরের ৩০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। তাদের সবার শরীরে ইলেকট্রিক বার ছিল।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।

এএইচএ
 

আরও পড়ুন

আরও
               
         
close