নারীর চুল কেটে দেয়ায় ঝালকাঠিতে আ’লীগ ও বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে মামলা
Back to Top

ঢাকা, শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০ | ১৬ কার্তিক ১৪২৭

নারীর চুল কেটে দেয়ায় ঝালকাঠিতে আ’লীগ ও বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে মামলা

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ৩:৫১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০

নারীর চুল কেটে দেয়ায় ঝালকাঠিতে আ’লীগ ও বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে মামলা
ঝালকাঠিতে এক নারীকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায় ও নির্যাতনের পরে চুল কেটে দেয়ার অভিযোগে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন মৌসুমি কেকা ও শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তাপুসহ ৬ জনের নামে আদালতে মামলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝালকাঠির নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ১ এ নির্যাতিত নারী পারভিন আক্তার বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মো. শহিদুল্লাহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে এজাহার গ্রহণের নির্দেশ দেন। পাশাপশি বাদীর সম্পূর্ণ নিরাপত্তার আদেশ দেন।

আইনজীবী মো. মোজাম্মেল হোসেন মামলার বিবরণে জানান, পারভীনের স্বামী বোরহান উদ্দিনের তালাকপ্রাপ্ত প্রথম স্ত্রীর ভাই ঝালকাঠি শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তাপু ও তার সহযোগী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন মৌসুমি কেকাসহ ৮-১০ জন গত ৩০ আগস্ট সন্ধ্যায় জেলা পরিষদের সামনের বাসায় যান।

এসময় তারা ঘরের ভেতরে ঢুকে ওই নারীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেন। তারা ওয়ারড্রপ ভেঙে নগদ দুই লাখ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়। পরে ওই নারীকে অপহরণ করে শহরের বিআইপি সড়কের একটি হোটেলে নিয়ে আটকে রেখে রাতভর নির্যাতন শেষে চুল কেটে দেয়।

তার কাছ থেকে কয়েকটি সাদা কাগজে সই নেয়া হয়। ওই নারীর ভাইকে ফোন করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ চায় আসামিরা। পরের দিন সকালে মুক্তিপণের টাকা দিলে নির্যাতিত নারীকে ছেড়ে দেয় আসামিরা।

এদিকে, এ ঘটনা সাজানো দাবি করে আইনিভাবে মোকাবিলার কথা জানিয়েছেন শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান তাপু।

এইচআর

 

আরও পড়ুন

আরও