ভারত থেকে এলো আরও ২০০ মেট্রিক টন অক্সিজেন
Back to Top

ঢাকা, রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪ আশ্বিন ১৪২৮

ভারত থেকে এলো আরও ২০০ মেট্রিক টন অক্সিজেন

বেনাপোল প্রতিনিধি ১০:১৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০২১

ভারত থেকে এলো আরও ২০০ মেট্রিক টন অক্সিজেন
করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির ভেতর এই প্রথম ১০টি কনটেইনারে ২১৬.৪৭০ মেট্রিক টন জীবনদায়ী তরল মেডিকেল অক্সিজেন নিয়ে দেশে প্রবেশ করেছে ভারতীয় রেলওয়ের বিশেষ ট্রেন ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’।
দুইশ টন অক্সিজেন নিয়ে ভারতীয় ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস‘টি শনিবার (২৪ জুলাই) রাত ১০টায় বেনাপোল রেলস্টেশনে এসে পৌঁছায়। 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে করোনা মোকাবিলায় এই উদ্যোগ নিয়েছে ভারত সরকার।

ভারতের প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরোর এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২০২১ সালের ২৪ এপ্রিল প্রতিবেশী কোনো রাষ্ট্রে ভারতে এই বিশেষ ট্রেন সেবা শুরুর পর থেকে এটাই অক্সিজেন এক্সপ্রেসের প্রথম যাত্রা। 

এ পর্যন্ত ভারতের অভ্যন্তরে এ ধরনের ৪৮০টি ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ চালু করা হয়েছিল। এই প্রথম কোনো প্রতিবেশী দেশে ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ পাঠালো ভারত সরকার। 

এর ফলে দ্রুত ও স্বল্প খরচে পৌঁছে যাবে অক্সিজেন বিভিন্ন হাসপাতালে। চালানটি বাংলাদেশের তরল মেডিকেল অক্সিজেনের প্রয়োজনীয় মজুত উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি করবে।

ভারতের তথ্য অধিদপ্তরের এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, বাংলাদেশের বেনাপোল স্থলবন্দরে দুইশ' মেট্রিক টন তরল মেডিকেল অক্সিজেন (এলএমও) পরিবহনের জন্য ভারতের দক্ষিণ-পূর্ব রেলওয়ের অধীনস্থ চক্রদহরপুরের টাটায় একটি ইনডেন্ট স্থাপন করা হয়। 

এর আগে টাটা চক্রদহরপুর রেলওয়ে বিভাগের কাছে বাংলাদেশের বেনাপোলে দুইশ‘ মেট্রিক টন তরল মেডিকেল অক্সিজেন পরিবহনের চাহিদা জানায়। 

শনিবার সকাল ৯টা ২৫ মিনিটে ১০টি কনটেইনারে দুইশ‘ মেট্রিক টন তরল মেডিকেল অক্সিজেন লোডিং সম্পন্ন হয়। পরে বিশেষ ট্রেনটি বেনাপোল বন্দরের উদ্দেশে রওয়ানা দেয়। রাত ১০টায় বেনাপোল রেলস্টেশনে এসে পৌঁছায়।

কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে ট্রেনটি বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমে সিরাজগজ্ঞের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবে। ওখানে খালি করে ট্রেনটি আবারও ফিরে যাবে ভারতে। 

অক্সিজেনের আমদানিকারক হলেন, লিন্ডে বাংলাদেশ। রফতানিকারকও লিন্ডে ইন্ডিয়া। বেনাপোলের সিএন্ডএফ এজেন্ট মেসার্স সারথী এন্টারপ্রাইজ।

বেনাপোল কাস্টমস হাউজের সহকারী কমিশনার কল্যাণ মিত্র পরিবর্তনকে জানান, অক্সিজেনবাহী ভারতীয় ট্রেনটি বেনাপোল বন্দরের রেলওয়ে স্টেশনে প্রবেশের সাথে সাথে দ্রুততার সাথে কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করে খালাস দেওয়া হয়। যা পরবর্তীতে বাংলাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে সরবরাহ করা হবে। 

ঈদের ছুটির মধ্যে অক্সিজেনসহ জরুরি সামগ্রী আমদানিতে প্রয়োজনীয় আনুষ্ঠানিকতায় কাস্টমস সব সময় প্রস্তুুত রয়েছে বলে তিনি জানান।

বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার সাইদুজ্জামান জানান, এই প্রথম দুই‘শ টন অক্সিজেন নিয়ে ভারতীয় রেলওয়ের ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ নামের একটি বিশেষ ট্রেন বেনাপোলে এসেছে। কাস্টমসের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বিশেষ ট্রেনটি বঙ্গবন্ধু ব্রিজ ওয়েস্ট রেলওয়ে স্টেশনের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। 

উল্লেখ্য, ঈদের ছুটির মধ্যে বিশেষ ব্যবস্থায় গত বুধবার (২১ জুলাই) বিকালে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে আমদানি করা হয় ১৮০ মেট্রিক টন অক্সিজেন। দেশে করোনার চিকিৎসা খাতে অক্সিজেনের চাহিদা বাড়ায় বাংলাদেশের আমদানিকারকরা ১১টি ট্যাংকারে এ অক্সিজেন আমদানি করেন। 

এইচআর
আরো পড়ুন
 

আরও পড়ুন

আরও