যৌন হয়রানি: নিউইয়র্ক গভর্নরের পদত্যাগ
Back to Top

ঢাকা, সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১ | ২ কার্তিক ১৪২৮

যৌন হয়রানি: নিউইয়র্ক গভর্নরের পদত্যাগ

পরিবর্তন ডেস্ক ১:১২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০২১

যৌন হয়রানি: নিউইয়র্ক গভর্নরের পদত্যাগ
নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো বেশ কয়েকজন নারীকে যৌন হয়রানি করেছেন, তদন্তে এ রকম তথ্য বেরিয়ে আসার পর তিনি পদত্যাগ করেছেন। যদিও এর মধ্যেই তাকে অপসারণের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল।
মঙ্গলবার এ পদত্যাগের ঘোষণা দেন কুমো। তবে তিনি বরাবরের মতোই যৌন হয়রানির অভিযোগগুলো নাকচ করে দেন। 

তিনি বলেছেন, তার কর্মকাণ্ডের ফলে যেসব নারী আহত হয়েছেন, তাদের কাছে তিনি গভীর, গভীরভাবে ক্ষমা চান। এসব বিতর্ক সত্ত্বেও তিনি লড়াই চালিয়ে যেতে চান, কারণ তার বিশ্বাস রাজনৈতিক কারণে এসব ঘটছে।

অ্যান্ড্রু কুমোর এই পদত্যাগ ১৪ দিন পরে কার্যকর হবে বলে বিবিসির খবরে জানানো হয়েছে।

 কুমো বলেছেন, ‘আমার পক্ষ থেকে এখন সাহায্য করার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো পদত্যাগ করা এবং সরকারকে শাসনকাজ পরিচালনা করতে দেওয়া।’ 

নিজের পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে কুমো বলেন, ‘আমি একজন যোদ্ধা। আমি লড়াই চালিয়ে যাব, কারণ আমি বিশ্বাস করি এ বিতর্ক রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আমি মনে করি এটি অন্যায় এবং অসত্য।’

কুমোর পর গভর্নরের দায়িত্ব নেবেন লেফটেন্যান্ট গভর্নর ক্যাথি হকুল। ক্যাথি হকুল হতে যাচ্ছেন নিউইয়র্ক রাজ্যের গভর্নরের দায়িত্ব নেয়া প্রথম নারী।

অভিযোগ ওঠার পর থেকেই কুমো সহযোগী বেশ কয়েকজন ডেমোক্র্যাট নেতার কাছ থেকে পদত্যাগের চাপের মধ্যে ছিলেন। এদের মধ্যে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও রয়েছেন।

এক বছর আগেও যখন তিনি করোনাভাইরাস নিয়ে প্রতিদিন টেলিভিশনে বিস্তারিত তুলে ধরতেন, তখন আমেরিকার লাখ লাখ মানুষ তাকে প্রশংসা করতেন।

কেলেঙ্কারির জের ধরে একের পর এক দপ্তর ছাড়তে বাধ্য হওয়া টানা তৃতীয় গভর্নর কুমো।

নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিস তদন্ত করে দেখতে পায় যে, ৬৩ বছরের কুমো ১১ জন নারীকে যৌন হয়রানি করেছেন, যাদের মধ্যে অঙ্গরাজ্যটির কর্মীরাও রয়েছেন।

নারীরা অভিযোগ করেছেন যে, তিনি যৌন ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেছেন, আপত্তিকর স্পর্শ বা জড়িয়ে ধরেছেন এবং সম্মতি ছাড়াই চুমু খেয়েছেন।

তদন্ত প্রতিবেদনের পর অনেক ডেমোক্রেটিক সদস্যও কুমোর বিপক্ষে চলে যান, যাদের মধ্যে রয়েছেন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি, সিনেট নেতা চাক শুমার এবং নিউইয়র্কের দুইজন সিনেটর।

এইচআর
 

আরও পড়ুন

আরও